রাজ্যের উদাসীনতায় বাড়ছে করোনা, ফের মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ অধীরের

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৩ আগস্ট: রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে এক এবং একমাত্র রাজ্যসরকারের উদাসীনতার জন্যই।’ বৃহস্পতিবার এই সুরেই তোপ দাগলেন কংগ্রেস সাংসদ তথা লোকসভায় বিরোধী দলনেতা অধীর চৌধুরী। এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করলেন কংগ্রেস সংসদীয় নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন,‘দিদি’র নেতৃত্বে বাংলায় করোনা সংক্রমণ এ দেশের ১০ রাজ্যের মধ্যে জায়গা করেছে। লকডাউন এর বারবার দিনবদল দেখে বোঝা যাচ্ছে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার কোন ইচ্ছাই নেই রাজ্য সরকারের।’

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণের শুরুর দিকে পশ্চিমবঙ্গ দেশের অন্যান্য রাজ্যের নিরিখে অনেকটাই ভাল স্থানে ছিল। কিন্তু হঠাৎ করে রাজ্যে লাগাম ছাড়া করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকে। যা সামলাতে রাজ্য প্রশাসন রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে। সেই নিয়েই অধীরবাবু বলেন, ‘এ রাজ্যে করোনা বিষয়ক অনেক তথ্য গোপন করা হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে কোভিড ডেথ আন্ডার রিপোর্টেড বলে মনে করি আমি। কারণ, বাংলায় বিশাল সংখ্যার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল যা আছে, তারা এমসিসিডি অর্থাৎ মেডিকেল সার্টিফিকেশন অব কসিং অব ডেথ- এর আওতায় নেই, ফলে মৃত্যুর কারণ থেকে অজানা। পশ্চিমবঙ্গ সরকার আসল তথ্য দিচ্ছে না। অবস্থা দিন দিন আরও খারাপ হচ্ছে।’

অন্যদিকে জুলাই -এর শেষে দিকে করোনা সংক্রমণের নিরিখে তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে ভারত। প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আমেরিকা ও ব্রাজিল। আগস্টের শুরু থেকেই দৈনিক প্রায় ৫০ হাজারের বেশি মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ভারতে। বুধবার দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ লক্ষ ২৯ হাজার ৬৩৯ জন। এ নিয়ে এদিন কেন্দ্রকে আক্রমণ করতেও ছাড়েননি লোকসভায় বিরোধী দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে সংক্রমণের নিরিখে প্রথম হওয়ার লক্ষ্যে ছুটছে ভারত। মোদিজির নেতৃত্বে দেশ সারা বিশ্বে করোনা সংক্রমণে অন্য দেশকে টেক্কা দিয়ে ভারত স্থান তিন নম্বরে।’

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here