নিয়মের তোয়াক্কা না করে প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনায় গ্যাস নিতে ভিড় দোকানে

আমাদের ভারত, রামপুরহাট, ৬ এপ্রিল: প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনায় তিনমাস দেওয়া হবে বিনামূল্যে গ্যাস। ইতিমধ্যে গ্যাসের টাকা দেওয়া হয়েছে উপভোক্তাদের অ্যাকাউন্টে। উজ্জ্বলা গ্যাসের বই আপডেট করতে গ্যাসের দোকানে লম্বা লাইন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ মানছেন না উপভোক্তারা। পুলিশও হিমশিম খাচ্ছে লাইন ঠিক করতে।

দিন কয়েক আগে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ঘোষণা করেছেন উজ্জ্বলা প্রকল্পে তিনমাসে তিনটি গ্যাস দেওয়া হবে বিনামূল্যে। বিনামূল্যের গ্যাসের টাকা ইতিমধ্যে উপভোক্তাদের আকাউন্টে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। সিদ্ধান্ত হয়েছে গ্যাসের ডিস্ট্রিবিউটররা ওই সমস্ত উপভোক্তাদের বাড়ি বাড়ি গ্যাস পৌঁছে দেবে। কিন্তু অধিকাংশ উপভোক্তা নিয়মিত গ্যাস তোলেননি। কেউ কেউ গ্যাস নিলেও অর্থাভাবে ওভেন কিনতে পারেননি। ফলে অনেকের খাতা লক হয়ে গিয়েছে। তাছাড়া গ্যাস বুক করতে হয় মোবাইলের মাধ্যমে। কিন্তু বেশ কিছু উপভোক্তার মোবাইল নম্বর সংযুক্ত করা হয়নি। আদৌ তাদের ব্যাঙ্কের খাতায় টাকা ঢুকেছে কিনা তা জানতেই দুদিন ধরে লম্বা লাইন পড়ছে রামপুরহাট বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন একটি গ্যাসের দোকানে।

গ্যাস ডিলারের কর্ণধার মিহির বিশ্বাস বলেন, “এখান থেকে কাউকে গ্যাস দেওয়া হচ্ছে না। আমরা বাড়ি বাড়ি গ্যাস পৌঁছে দিচ্ছি। কিন্তু কিছু মানুষ আতঙ্কে ভিড় জমাচ্ছেন। কেউ ভাবছেন টাকা ঢোকেনি। কেউ ভাবছেন গ্যাস পাবেন না। কিছু মানুষ না জেনেই ভিড় জমাচ্ছেন। আমরা সাত সকালে খরি দিয়ে দন্ডি কেটে দিয়েছি। কিন্তু মানুষ সেই নিয়মকানুনের তোয়াক্কা করছে না। পরে প্রশাসনের সহযোগিতায় মানুষ সামাজিক দুরত্ব বাজায় রেখে তাদের গ্যাস সংক্রান্ত সমস্যা মিটিয়ে গিয়েছেন”। উপভোক্তা অসিত মণ্ডল বলেন, “মানুষ গ্যাস পাবে না ভেবে ছুটে আসছেন”।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here