হাসপাতালে ডাক্তারের করোনা পজিটিভ, তাই ইমার্জেন্সি বিভাগ গেটের সামনে

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদীয়া, ১৬ জুলাই:
বুধবার শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে এক ডাক্তারের দেহে করোনা পজিটিভ পাওয়ার পর
ইমার্জেন্সি পরিষেবা সরিয়ে নিয়ে আসা হল হাসপাতালের গেটের সামনে। হাসপাতালের গেটের সামনেই কেবলমাত্র ইমারজেন্সি রোগীদের দেখা হবে। এছাড়া বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে অন্যান্য বিভাগ।

শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকের করোনা পজেটিভ হওয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার হাসপাতাল পরিদর্শন করলেন শান্তিপুর পুরসভার প্রশাসক অজয় দে। বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালে গিয়ে হাসপাতালের সুপার ও কর্মীদের সাথে কথা বলেন তিনি। পাশাপাশি হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে আসা রোগীদের যাতে কোনো সমস্যা না হয় ও তাদের নিরাপত্তার বিষয় নিয়েও হাসপাতাল কতৃপক্ষের সাথে কথা বলেন তিনি। সমস্ত রকম পরিস্থিতিতে পুরসভা হাসপাতালের পাশে থাকবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান তথা শান্তিপুর পৌরসভার প্রশাসক অজয় দে বলেন, শান্তিপুরের মানুষের মধ্যে যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে সেই আতঙ্কটা যাতে বেশি না ছড়ায় সেজন্য তাঁর আসা। প্রকৃত অবস্থাটা মানুষের কাছে তুলে ধরা। এখানে দেখলাম ৭-৮ জন ডাক্তার গতকাল রাত থেকে ইমারজেন্সি চালাচ্ছেন। কোনঈ অসুবিধা নেই।সাধারণ মানুষ আসছেন। আর ডেলিভারি ওয়ার্ডেও আট জন ভর্তি হয়েছেন।

শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালের সুপার জয়ন্ত বিশ্বাস জানান, গতকাল এখানে একজন ডাক্তারের দেহে করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। তাঁকে চিকিৎসার জন্য কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এছাড়া আরএকজন ডাক্তারের দেহে করোনার উপসর্গ ধরা পড়েছে। সে কারণে এখন শুধু ইমার্জেন্সি পরিষেবা, প্রসূতি বিভাগ, এন্টির‍্যাবিস ভ্যাকসিন চালু আছে। শুধুমাত্র মেল ফিমেল ওয়ার্ড সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।

যেহেতু ওই ডাক্তার টানা সাতদিন ওখানে ডিউটি করেছিলেন সেহেতু নতুন করে ওখানে আমরা কাউকে ভর্তি করতে পারছিনা। যতক্ষণ না ওই দুটো ওয়ার্ড স্যানিটাইজাড হচ্ছে। যেহেতু ইমারজেন্সি ওয়ার্ডেও উনি ডিউটি করতেন সেই কারণে ইমার্জেন্সি সাময়িকভাবে হাসপাতালের গেটের সামনে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here