জেলার খবর

শেষ হল চন্দননগরের ঐতিহ্যের জগদ্ধাত্রী পুজো

আমাদের ভারত, হুগলী, ৮ নভেম্বর: সারা বছর যা দেখার জন্য সমগ্র দেশ তথা বিশ্বের মানুষ অপেক্ষা করে থাকেন বৃহস্পতিবার সন্ধা থেকে সেই শোভাযাত্রা পরখ করেন লক্ষাধিক মানুষ। প্রশাসনের দেওয়া সময় অনুযায়ী সন্ধ্যে সাড়ে ছ’টার কিছু পরে চন্দননগর স্টান্ড রোড থেকে শুরু হয় আলোক যাত্রা। কোথাও পোকামাকড়রা শুরু করল নড়াচড়া, কোথাও আবার বিশাল নাগর দোলনায় বিশাল মেলার ছবি। আবার কোনো বারোয়ারীর আলোয় হাজির চন্দ্রযান সহ এ্যামাজন অভিযান, কোথাও আবার ট্রাডিশনাল ফুলের মেলা। কি বাদ দেবেন কি দেবেন না ভাবতে ভাবতেই হাজির আর একজন। আর মা জগদ্ধাত্রী, বিশালাকার জগদ্ধাত্রী মাকে অপরূপ রূপে সাজিয়ে সুশৃঙ্খল ভাবে এগিয়ে চলছে ঐতিহ্যের শোভাযাত্রা। রাত যত বেড়েছে চন্দননগরের আলোর যাদুকরদের হাতের সৃষ্টি রঙীন আলো মেখে সারা রাত রাস্তার ধারে বসে থেকেছেন অগণিত সাধারণ মানুষ। সাথে বিভিন্ন ব্যান্ডের মনমাতানো সুর, সং, ঢাকের আওয়াজ বুঝতেই দিল না কতক্ষণে ভোর হতে চলেছে।
ভদ্রেশ্বর, মানকুন্ডু, চন্দননগর এবং চুঁচুড়ার বিভিন্ন রাস্তায় আলোর মায়াবী জাদু মাখিয়ে ভোর বেলায় শেষ হয় ঐতিহাসিক শোভাযাত্রা। এর পর নির্দিষ্ট পুজো কমিটির জন্য নির্দিষ্ট করে দেওয়া গঙ্গার ঘাটে শুরু হয় প্রতিমা নিরঞ্জন।

চন্দননগর কর্পোরেশন, কমিশনারেট সহ জেলা প্রশাসনের তৎপরতায় সর্বোপরি বারোয়ারি উদ্যোক্তাদের নিখুঁত দক্ষতায় একে একে প্রতিমা গুলি ভাসান দেওয়া হয় গঙ্গায়। সাথে সাথেই খড় কেটে কাঠামোও তুলে নিয়ে যান বারোয়ারির উদ্যোক্তারা। সাথে একটাই আওয়াজ আসছে বছর আবার হবে।

Leave a Comment

3 × four =

Welcome To Amaderbharat. We would like to keep you updated with the Latest News.