হাথরসের পালটা! বাংলার সব জেলায় ধর্ষণ- অপহরণ তালিকা-সহ মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ রাজ্যপালের

রাজেন রায়, কলকাতা, ৬ অক্টোবর: উত্তরপ্রদেশের হাথরসে নারকীয় ধর্ষণকাণ্ডের প্রতিবাদে কেন্দ্র সরকার বিজেপির বিরুদ্ধে রীতিমত ঝড় তুলে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পদযাত্রা থেকে টুইটে প্রত্যেকদিনই বিদ্ধ করছেন কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারকে। কিন্তু তার নিজের রাজ্যেই প্রত্যেক জেলায় ধর্ষণ থেকে অপহরণের ভুরি ভুরি ঘটনা ঘটলেও সেদিকে কোনও নজরই নেই রাজ্য প্রশাসনের, সে কথা তথ্য সহ এবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন রাজ্যপাল।
রাজ্যের কোন জেলায় কতগুলি ধর্ষণ এবং কতগুলি অপহরণের ঘটনা ঘটেছে, তার তালিকা দিয়ে রাজ্যপাল এবার আক্রমণ করলেন রাজ্য প্রশাসনকে।

প্রসঙ্গত, বিভিন্ন ক্ষেত্রে রাজ্য প্রশাসনের গাফিলতির অভিযোগ তুলে একের পর এক ট্যুইট বরাবরই করেন রাজ্যপাল। সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গি সন্দেহে পশ্চিমবঙ্গ থেকে একাধিক গ্রেফতার হওয়া, রাজনৈতিক খুন — সব নিয়েই নবান্নের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা শানিয়েছেন রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান। গতকালই ব্যারাকপুরের বিজেপি নেতা মণীশ শুক্ল খুনের ঘটনায় মুখ্যসচিবের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। আর এবার রাজ্যের নারী নিরাপত্তা যে কতটা ঠুনকো, তা তথ্য দিয়ে প্রমাণ করে দিলেন তিনি।

এদিন দুপুরে, অগস্ট মাস জুড়ে এ রাজ্যের কোন জেলায় কত মহিলা অপহৃত ও কত মহিলা ধর্ষিত, তার রীতিমতো একটি পরিসংখ্যান প্রকাশ করেন রাজ্যপাল। সেই তালিকা টুইট করে এদিন তিনি লেখেন, “সরকারি রিপোর্ট অনুযায়ী ২২৩টি ধর্ষণ এবে ৬৩৯টি অপহরণ হয়েছে অগস্ট মাসে। এটাই এই রাজ্যে নারী হিংসার ছবি। শৃঙ্খলা ফেরানোর সময় হয়েছে এবার।” যদিও এই তথ্য তিনি কোথায় পেলেন, তা উল্লেখ করেননি।

এমনিতেই এ রাজ্যের শাসকদলের দাবি, রাজ্যপাল বিজেপির মুখপাত্রের মতো আচরণ করেন। মুখ্যমন্ত্রী উত্তরপ্রদেশের হাথরস কাণ্ড নিয়ে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ক্রমাগত আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তাই তাকে যোগ্য জবাব দিতেই রাজ্যপালের এই ট্যুইট বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here