ইমামদের ২৫০০ আর ব্রাহ্মণদের ১০০০! ব্রাক্ষণদের সমান হারে ভাতা দেওয়ার দাবি তুললেন ইমাম সংগঠনের প্রধান

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৬ সেপ্টেম্বর: ব্রাহ্মণ ভাতা নিয়ে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়িয়েও বিতর্ক উস্কে দিলেন খোদ ইমামদের সংগঠনের প্রধান। ইমামদের সমান হারে ব্রাক্ষণদের ভাতা দেওয়ার দাবি জানান তিনি। বুধবার বেঙ্গল ইমামস অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান মহম্মদ ইয়াহিয়া বলেন, ১,০০০ টাকায় আজকাল কার দিনে কী হয়? পুরোহিতদের ইমামদের সমান হারে ভাতা দেওয়া উচিত।’

প্রসঙ্গত, মুুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু তোষণের অভিযোগ তুলে বারবারই সরব হয়েছিল বিরোধী দল বিজেপি। কটাক্ষ করতে ছাড়েননি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরও। কিন্তু পুজোর ঠিক আগেই ৮০০০ ব্রাহ্মণকে হাজার টাকা করে পুরোহিত ভাতা দেওয়ার ঘোষণা করে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে মাস্ট্রারস্ট্রোক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী, এমনটা মনে করছেন অনেকেই। যদিও ২০১২ সালে ঘোষিত ইমাম ভাতা ২৫০০ টাকা হলেও ব্রাহ্মণদের মাত্র হাজার টাকা করে দেওয়ায় এখানেও বৈষম্যের অভিযোগ তুলেছেন অনেকেই। বিরোধীদের দাবি, ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে টাকা দিয়ে হিন্দুদের ভোট কিনতে চাইছেন মমতা। আর এখানেই ধর্মবিশ্বাসে পার্থক্য থাকলেও মানবিকতা দেখিয়ে পুরোহিতদের সমর্থনে ইমামদের সমান ভাতা দেওয়ার দাবি জানালেন বেঙ্গল ইমাম সংগঠনের প্রধান।

মহম্মদ ইয়াহিয়া বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী যে প্রকল্প ঘোষণা করেছেন তা নিছকই জনকল্যাণের কথা মাথায় রেখে। কারণ, সব হিন্দু তো আর পুরোহিত নয়। আর যদি তর্কের খাতিরে ধরেও নেওয়া হয় তিনি হিন্দু ভোট নিশ্চিত করতে এই পদক্ষেপ করেছেন, তাহলে প্রশ্ন ওঠে হিন্দু ভোট কংগ্রেস আর বিজেপির পৈত্রিক সম্পত্তি নাকি? তণমূলের হিন্দু ভোট পাওয়ার অধিকার নেই?’ সেই সঙ্গে ইমামদের সংগঠনের প্রধানের দাবি,‘১০০০ টাকাটা খুবই সামান্য অনুদান। পুরোহিত ও ইমামদের সমান হারে ভাতা পাওয়া উচিত।’ এখন বিষয়টি রাজ্য সরকার কিভাবে বিবেচনা করবে, সেটা অবশ্যই সময় বলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here