বামফ্রন্ট মিথ্যা কথা বলত না: অনুব্রত

আশিস মণ্ডল, বীরভূম, ২৪ জুলাই: “আমরা ৩৪ বছর ধরে বামফ্রন্টকে দেখেছি। বামফ্রন্টকে দেখলেও তারা এতো মিথ্যা কথা বলত না। মানুষকে ধোকা দিত না। আর বিজেপি সমানে মানুষকে মিথ্যা কথা বলে”। বিধানসভা নির্বাচনে শূন্য পাওয়া বামেদের এভাবেই দরাজ সার্টিফিকেট দিলেন তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। শনিবার তৃণমূলের বোলপুর পার্টি অফিসে বীরভূমের বেশ কিছু বিজেপি কর্মী সমর্থক তৃণমূলে যোগ দেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন অনুব্রত মণ্ডল। জেলায় তৃণমূলের দাপুটে নেতার মুখে আচমকা বামেদের সুনাম শুনে হতবাক রাজনৈতিক মহল। তবে বিষয়টি যে নিতান্ত কাকতলীয়, এমনটা মনে করছেন না অনেকেই।

এ বিষয়ে সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বীরভূমের প্রাক্তন সাংসদ রামচন্দ্র ডোম বলেন, “সত্য চিরকাল সত্যই থাকে, অনুব্রত মণ্ডল যে কথা বলেছেন সেটা তার না তার দলের কথা জানি না। তবে বিজেপির মতন ভাগ করার শক্তিকে রুখতে এবং তৃণমূল সরকারের রাজনীতির বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন চলবেই”।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “যারা বিজেপিতে গিয়েছিলেন তারা ভুল করে গিয়েছিলেন। তারা ফিরে এসেছে। তৃণমূল কখনও মিথ্যা কথা বলে না। কাউকে ধোকা দেয় না। যা করতে পারবে তাই প্রতিশ্রুতি দেয়। এক বছর ধরে চলা করোনা অতিমারিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেশনে চাল দিয়েছিল বলে অনেকে খেতে পেয়েছে। আমরা মানুষের পাশে থাকতে চাই। মানুষের জন্য উন্নয়নের কাজ করতে চাই। কিন্তু বিজেপি মিথ্যা কথা বলে। মানুষকে ধোকা দেয়। ওরা দেশে শান্তি চায় না। সব সময় অশান্তি লাগিয়ে রাখতে চায়। আমরা তাই বিজেপির বিরুদ্ধে এক হয়ে লড়ব। আমরা সকলে একজন কর্মী হয়ে কাজ করে যাব”।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here