লোধা সম্প্রদায়ের উপর অত্যাচারের অভিযোগ

আমাদের ভারত, ঝাড়গ্রাম, ৯ এপ্রিল: ঝাড়গ্রাম থানা এলাকার লোধাশুলি গ্রাম পঞ্চায়েতের শিমুলডাঙ্গা গ্রামের লোধা শবরদের ওপর অত্যাচারের অভিযোগ উঠেছে বনদপ্তরের বিরুদ্ধে। জঙ্গলমহলের লোধা শবর  জনজাতির মানুষেরা দিনমজুরের পাশাপাশি মূলত জঙ্গল থেকে শুকনো কাঠ পাতা ও অন্যান্য গৌন বনজ সম্পদ সংগ্ৰহ ও বিক্রয় করে জীবিকা নির্বাহ করে। 

বর্তমান লকডাউনে খুবই সংকটের মধ্যে জীবন যাপন করতে হচ্ছে তাদের। এই পরিস্থিতিতে তারা জঙ্গলে কাঠ ও শালপাতা আনতে গেলে বনকর্মীদের হুমকি ও প্রতিরোধের মুখে পড়েন বলে অভিযোগ।

পশ্চিমবঙ্গ লোধা শবর সমাজের কার্যকরী সভাপতি ঝরনা আচার্যের অভিযোগ, বুধবার মানিকপাড়া বন দপ্তর মানিকপাড়া ফাঁড়ির পুলিশ সঙ্গে নিয়ে শিমুলডাঙ্গা গ্রামে যায় এবং লোধাদের বাড়িতে ঢুকে জিনিসপত্র তছনছ করে  এবং জঙ্গলে না যাওয়ার হুমকি দেয়। এরপর ওই গ্রামের মহিলারা বনদপ্তরের  মানিকপাড়া কার্যালয়ে  জমায়েত হয়ে প্রতিবাদ জানায়।

পশ্চিমবঙ্গ লোধা শবর সমাজের কার্যকরী সভাপতি জানিয়েছেন, লকডাউনের  সময় এই ধরনের ঘটনার তীব্র  নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দোষী ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে আদিম আদিবাসী লোধা শবরদের  ঘরে  অত্যাচার করার জন আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্ৰহণের জন্য অনগ্রসর শ্রেণি কল্যাণ দপ্তরে আবেদন জানানো হয়েছে। 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here