ঘোলায় পুকুর থেকে যুবকের রহস্যজনক মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য, তদন্তে পুলিশ

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ১২ আগস্ট: উত্তর ২৪ পরগনার সোদপুর নাটাগড় এলাকায় একটি পুকুর থেকে যুবকের মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ওই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হল। বুধবার সকালে ঘোলা থানার অন্তর্গত নাটাগড় কদমতলা এলাকায় একটি পুকুরে উল্টানো অবস্থায় এক যুবকের ভাসমান মৃতদেহ দেখতে পান এলাকার বাসিন্দারা। সেই মৃতদেহ উদ্ধারের জন্য স্থানীয় বাসিন্দারা ঘোলা থানার পুলিশকে খবর দেন।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় ঘোলা থানার পুলিশ এবং পানিহাটি পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর স্বপন কুণ্ডু সহ অন্যান্য তৃণমূল কর্মীরা। এদিকে বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় কদমতলার ওই পুকুর থেকে যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়। মৃত যুবকের পরনে মেরুন রঙের গেঞ্জি এবং হাফ প্যান্ট ছিল। এলাকার বাসিন্দারা মৃত যুবকের দেহ চিনতে পারেনি। স্থানীয়দের অনেকেরই ধারণা, বাইরের অন্য কোথাও থেকে খুন করে ওই যুবককে কদমতলা এলাকার পুকুরে কেউ বা কারা ফেলে দিয়ে যেতে পারে। আবার অনেকের বক্তব্য, যুবক এলাকার পরিচিত নয়। নেশা করে এই পুকুরে পড়ে গিয়েও তার মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।

পানিহাটি পুরসভার প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর স্বপন কুণ্ডু বলেন, “এলাকার বাসিন্দাদের কাছে প্রথম খবর পাই এই পুকুরে এক যুবকের মৃতদেহ ভাসছে। এসে দেখলাম পুলিশ দেহটি উদ্ধার করেছে। এলাকার লোকজন মৃত যুবককে চিনতে পারেনি। পুলিশকে বলেছি ঘটনার সত্য সামনে আনতে। যদি এই যুবককে বাইরে থেকে খুন করে এই পুকুরে কেউ বা কারা ফেলে দিয়ে যায়, তবে বিষয়টি ভয়ঙ্কর। পুলিশ তদন্ত করে সত্য ঘটনা সামনে আনুক।” মৃতের নাম ও পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে না আসা পর্যন্ত মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা সম্ভব নয়। ঘোলা থানার পুলিশ মৃত যুবকের দেহ ময়না তদন্তে পাঠিয়েছে। ঘোলা থানার পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here