রাজ্যে জেলার সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হতে পারে, আমলাদের সম্মেলনে ইঙ্গিত দিলেন মমতা

আমাদের ভারত, ১২ মে: আগামী দিনে পশ্চিমবঙ্গে আরও নতুন নতুন জেলা হবে। জেলার সংখ্যা দ্বিগুণও হতে পারে। বৃহস্পতিবার টাউনহলে আমলাদের সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, তার জন্য আরও বেশি সংখ্যক আধিকারিকদের প্রয়োজন। কিন্তু কেন্দ্রের কাছে বার বার আইএএস অফিসারদের বঙ্গে কাজের সুযোগ করে দেওয়ার আবেদন জানিয়েও সাড়া মেলেনি বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই কারণেই জেলা ভাগাভাগির কাজ এগোতে পারছেন না বলে এক রকম অভিযোগের সুর শোনা গেছে মুখ্যমন্ত্রীর গলায়।

বৃহস্পতিবার টাউনহলে মুখ্যমন্ত্রী আমলাদের বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দেন। সেখানে বেশ কয়েকজন আমলার ভূয়শী প্রশংসা করেন মুখ্যমন্ত্রী। পূর্ব মেদিনীপুর, বীরভূম, পুরুলিয়ার জেলাশাসকদের প্রশংসা করে তিনি বলেন, “এখন রাজ্যে ২৩টি জেলা রয়েছে। কিন্তু এরপর ৪৬টিও হতে পারে। আর তার জন্য অফিসার দরকার। পরিকাঠামো দরকার। পরিকাঠামো আমাদের আছে কিন্তু পর্যাপ্ত অফিসার নেই।”

এর আগে এপ্রিল মাসের নবান্নে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই নিয়ে আলোচনা হয়। বাংলায় ৪২টি লোকসভা কেন্দ্র রয়েছে অথচ জেলার সংখ্যা মোটে ২৩টি। বাংলার চেয়ে ছোট অনেক রাজ্যেই জেলার সংখ্যা বেশি। প্রশাসনিক কাজ পরিচালনার জন্য এই রাজ্যেও জেলার সংখ্যা বাড়াতে চাইছে নবান্ন। বড় জেলাগুলিকে ভাঙার পরিকল্পনা রয়েছে। আর জেলার সংখ্যা বাড়িয়ে প্রশাসনিক কাজ পরিচালনার জন্য অনেক বেশি অফিসার প্রয়োজন। দরকার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারের। কিন্তু সেই তুলনায় রাজ্যে আমলার সংখ্যা কম। পর্যাপ্ত সংখ্যক আমলা চেয়ে দিল্লির ইউপিএসসিকে চিঠি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে। এ বিষয়ে মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে
নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার ডাবলুবিসিএস অফিসারদের বার্ষিক সম্মেলনে জেলা ভাগের ইঙ্গিত দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন, কেন্দ্রের অসহযোগিতায় বাংলায় পর্যাপ্ত আইএএস ও আইপিএস না থাকায় জেলা ভাগের কাজ এগোনো সম্ভব হচ্ছে না।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here