গলায় জ্যান্ত কই আটকে নির্মম মৃত্যু প্রৌঢ়ের

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ২৯ এপ্রিল: পুকুরে মাছ ধরতে নেমে কই মাছ ধরেছিলেন সনৎ মণ্ডল ওরফে চুনো। অসাবধানতাবশত সেই কই মাছটি গলার মধ্যে ঢুকে যায়। আর এর ফলেই ঘটে বিপত্তি। বেঘোরে প্রাণ যায় বছর পঞ্চাশের ঐ প্রৌঢ়ের। বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার ক্যানিং থানার অন্তর্গত তালদি গ্রাম পঞ্চায়েতের আন্ধারিয়া গ্রামে। এই ঘটনায় এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

পাড়ায় পাড়ায় ফেরি করে আচার বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন চুনো। দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার। কিন্তু লকডাউন চলার কারণে কাজ বন্ধ। ফলে যত দিন যাচ্ছে ততই পরিবারের অবস্থা খারাপ হচ্ছে। স্থানীয় ভাবে কিছু সাহায্য পেয়েছিলেন ঠিকই, কিন্তু তা চাহিদার তুলনায় যথেষ্ট কম। তাই ভেবেছিলেন নিজের পুকুর থেকে কিছু মাছ ধরে তা বাজারে বিক্রি করে সংসারের জন্য কিছু চাল, ডাল কিনে আনবেন। সেই ভেবেই এদিন সকালে পুকুরে নেমেছিলেন। কিন্তু তাতেই হল বিপত্তি।

পুকুরে নেমে হাত দিয়ে মাছ ধরতে শুরু করেন তিনি। একটি কই মাছ ধরা পড়তেই সেটাকে নিজের মুখের মধ্যে কামড়ে ধরে আবার মাছ ধরা শুরু করেন। আর ঠিক তখনই ঘটে যায় দুর্ঘটনা। দাঁত দিয়ে কামড়ে ধরা মাছটি নিজেকে ছাড়ানোর চেষ্টা করতে ঝটকা দিলে মুখ আলগা হয়ে যায় চুনোর। মাছটি মুখ দিয়ে তার গলার মধ্যে ঢুকে যায়। অসহ্য যন্ত্রণায় কাতরাতে শুরু করেন ঐ ব্যক্তি। তার চিৎকার শুনে পরিবার ও প্রতিবেশীরা ছুটে এসে উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

ক্যানিং থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠিয়েছে। কিভাবে দুর্ঘটনা ঘটল সে বিষয়েও তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here