বাংলার মানুষ শীঘ্রই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজনৈতিক শরণার্থী করে দেবে: অমিত শাহ

শ্রীরূপা চক্রবর্তী, আমাদের ভারত, ৯ জুন: দ্বিতীয় মোদী সরকারের প্রথম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে দেশজুড়ে ভার্চুয়াল জনসভার আয়োজন করছে বিজেপি। আজ পশ্চিমবঙ্গের মানুষের উদ্দেশ্যে ভার্চুয়াল জনসভা করেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আর এই সভা থেকে তুলোধুনা করেন তিনি বর্তমান রাজ্য সরকারের। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তার বার্তা বাংলার মানুষ খুব শীঘ্রই তাকে রাজনৈতিক শরনার্থী করে দেবে।

আজকের সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অমিত শাহ মোদীর জামানায় হওয়া একের পর এক কাজের খতিয়ান তুলে ধরেন। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ, রামমন্দির নির্মান, তিন তালাক আইন বিলোপ, তথা নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের মত বিষয়গুলি মোদী জমানার সাফল্য হিসেবেই তুলে ধরেন তিনি।

আর সেখানেই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে বলেন, যখনই এই আইন প্রণয়নের কাজ শুরু হয় তখন সবচেয়ে বেশি বিরোধিতা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণ এতে তার তোষণের রাজনীতি ধাক্কা খেয়েছে। আর সেই জন্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই আইনের বিরোধিতায় রাস্তাতেও নেমে পড়েন। আর এখানেই অমিত শাহ প্রশ্ন তোলেন, রাজ্যের মতুয়া সমাজ, নমঃশূদ্র সমাজ তথা বাংলাদেশ থেকে আসা মানুষ কি দোষ করেছে? কেন তারা ভারতের নাগরিকত্ব পাবেন না? কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাদের এই অধিকার পেতে দিচ্ছেন না?”

অমিত শাহ বলেন, বাংলার মানুষ আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই তোষণের রাজনীতি মেনে নেবে না। বাংলার শরনার্থীদের নাগরিকত্ব পেতে যেভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আটকাচ্ছেন তাতে এবার বাংলার মানুষ তাকে রাজনৈতিক শরণার্থী করে দেবেন খুব তাড়াতাড়ি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here