২৩ জানুয়ারি ভাটপাড়ায় গন্ডগোলের ঘটনায় সাংসদ অর্জুন সিং এবং তার ছেলে পবন সিংয়ের নামে অভিযোগ দায়ের তৃণমূলের

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ২৪ জানুয়ারি: ২৩ জানুয়ারি ভাটপাড়ার গন্ডগোলের সূত্র ধরে এবার শুরু হল অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের পালা। ইতিমধ্যেই
ভাটাপাড়া থানায় সাংসদ অর্জুন সিং এবং তার ছেলে ভাটপাড়ার বিধায়ক পবন সিংয়ের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ভাটপাড়া পৌরসভার প্রশাসক গোপাল রাউত এই অভিযোগ দায়ের করেন। মূলত হামলা, মারধর এবং গুলি চালানোর অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ভাটপাড়া থানায়।

অপর দিকে সাংসদ অর্জুন সিংও পালটা অভিযোগ দায়ের করেছেন পাঁচ জনের নামে। ভাটপাড়ার প্রশাসক গোপাল রাউত, অমিত সাউ, ত্রুন সাউ, অরুন সাউ এবং নুরে আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন অর্জুন সিং। ২৩ জানুয়ারি ভাটপাড়াতে ঘটা ঝামেলার ঘটনায় তৃণমূলের অভিযোগকে সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করলেন সাংসদ অর্জুন সিং। গতকাল নেতাজি মূর্তিতে মাল্যদানকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত হয়। ভাটপাড়ার বিধায়ক তথা অর্জুন পুত্র পবন সিং নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানিয়ে মাস্ক বিলি করছিলেন আর সেই সময় তৃণমূলের সাথে ঝামেলা বাধে বলে অভিযোগ। এরপর সাংসদ অর্জুন সিং ঘটনাস্থলে পৌঁছে সেখানে থাকা পতাকা তুলতে যান আর তখন তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের দ্বারা আক্রান্ত হন। সেই হামলায় পবন সিংহের নিরাপত্তারক্ষী সিআইএসএফের এক জওয়ানের গুলি লাগে বলেও অভিযোগ। সেখান থেকে তাকে সরিয়ে আনতে সিআরপিএফ জাওয়ান শূনে গুলি চালান, এমনটাই দাবি অর্জুন সিং’য়ের।

এই ঘটনায় তৃণমূলের তরফ থেকে অর্জুন সিং ও তার পুত্র পবন সিং’য়ের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এই বিষয়ে বিধায়ক সোমনাথ শ্যাম বলেন, “নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিনকে কলঙ্কিত করে দিল অর্জুন সিং। আমরা গুলি, বোমার লড়াই করব না। আমরা কলমের লড়াই লড়বো। তাই আমরা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছি, লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। নেতাজি মূর্তিতে মালা পরানোতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু ওখানে যে পতাকা উত্তোলন করার ব্যবস্থা ছিল সেটা তোলার নিয়ম অনুসারে পৌর প্রশাসক গোপাল রাউতের উত্তোলন করার ছিল। কিন্তু সাংসদ পতাকা তুলতে চলে আসে। সবকিছুর একটা নিয়ম আছে তাই উনি পতাকা তুলতে চাইলে সাধারণ মানুষ তার বিরোধিতা করেছিল। তবে এই সম্পূর্ণ ঘটনাটা অর্জুন সিং’য়ের আগের থেকে ভেবে রাখা, সাজানো।”

তবে এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সাংসদ অর্জুন সিং রাজ্য পুলিশকে বেচারা বলে কটাক্ষ করে বলেন, “রাজ্য পুলিশকে অভিনন্দন জানাই যে আমার ওপর আবার নতুন মামলা করেছে। তবে এতে আমার কিছু যায় আসে না। কারণ এমনিতেই অনেক মিথ্যা মামলা আমার নামে করা হয়েছে। এবার আমার গিনেস বুকে নাম উঠবে। আমার খুব খারাপ লাগে এই রাজ্যের পুলিশদের দেখে। ওরা দেখেও কিছু দেখে না কিছু করে না। ওনাদের সামনে গত কাল এত বড় ঘটনা ঘটে গেল।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here