আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নামার ঘোষণা ওয়েস্ট বেঙ্গল বেসরকারি বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনের

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ১০ আগস্ট: চরম আর্থিক দুর্দশায় পড়ে এবার কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে এক গুচ্ছ অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নামার ঘোষণা করলেন ওয়েস্ট বেঙ্গল বেসরকারি বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা। তারা জানিয়েছে, চলতি মাসের ১২ তারিখ কলকাতার রাস্তায় ৫টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা দাড়িয়ে বিক্ষোভ দেখাবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমানে কলকাতার রাস্তায় ২৭ হাজার বেসরকারি বাস ও মিনিবাস গণ পরিবহন হিসেবে নিত্য যাত্রীদের পরিষেবা দিচ্ছে।

উত্তর ২৪ পরগনার বরানগরে ওয়েস্ট বেঙ্গল বেসরকারি বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা তাদের দপ্তরে সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দেয়, যেহেতু এই লকডাউনের সময় গণ পরিবহন সচল রাখতে হচ্ছে তাদের, সেক্ষেত্রে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে প্রতিটি বেসরকারি বাস ও মিনিবাসের মালিকদের। রাজ্য সরকার বেসরকারি বাস ও মিনিবাসের মালিকদের নানা ভাবে সুবিধা দিয়েছে। রাজ্য সরকার বেসরকারি বাস ও মিনিবাসের মালিকদের সংগঠনকে জানিয়ে দিয়েছে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত কোনও বাস রাস্তায় চলাচলের জন্য কর দিতে হবে না। তবে কেন্দ্রের হাতে যে বিষয়গুলি রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে কেন্দ্রীয় সরকার বাংলার পরিবহন সংস্থার জন্য সাহায্যে এগিয়ে আসেনি।

ওয়েস্ট বেঙ্গল বেসরকারি বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপ নারায়ণ বসু সাংবাদিক বৈঠক করে বলেন, “কেন্দ্র গাড়ির বার্ষিক ইন্স্যুরেন্সের সময়সীমা বৃদ্ধি করুক। প্রত্যেক বছর ইন্স্যুরেন্সের জন্য প্রতিটি গাড়ি পিছু মোটা টাকা গাড়ির মালিকদের ইন্স্যুরেন্সের টাকা কেন্দ্রের ঘরে জমা করতে হয়, যা আমাদের সমস্যায় ফেলছে। ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি কমাতে হবে। এতটাকা দিয়ে গাড়ি চালালে গাড়িকেই আমরা বাঁচাতে পারব না। তাই গাড়ি বাঁচলে সবাই বাঁচবে। আমরা বাঁচব, পরিবহন কর্মীরা বাঁচবে। আমরা কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ দাবি করে গত মাসে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা
করেছিলাম, কোনও সদুত্তর পাইনি। আমরা সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকারকে মেল করেছি, কোনও উত্তর আসেনি। তাই বাধ্য হয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগামী ১২ আগস্ট আমরা কলকাতার রাস্তায় নেমে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করব। আমরা চাই কেন্দ্র আমাদের সমস্যাগুলি অনুভব করে আমাদের দাবি মেনে নিক ।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here