শীতের সকালে ভবঘুরেদের পিঠে খাওয়ালেন যুবক

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ২ জানুয়ারি:
শীত মানেই নলেন গুঁড়, মোয়া, পিঠে আরও কত কি। শীতের দিনে এই সব সুস্বাদু মিষ্টি প্রায় প্রতিটি বাঙালির ঘরেই রসনা নিবারণ করে। কিন্তু যাদের ঘর নেই তাদের ইচ্ছে কিভাবে চেখে দেখবেন তা স্বপ্নেও ভাবতে পারেন না। সেই সমস্ত ভবঘুরেদের এই শীতকালীন সুস্বাদু মিষ্টির স্বাদ দিতে উদ্যোগী হলেন এক যুবক। ফারুক আহমেদ সরদার নামে ওই যুবক নতুন ইংরেজি বছরের দ্বিতীয় দিনের সকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং বাজার এলাকার ভবঘুরে মানুষদের হাতে তুলে দিলেন মিষ্টি।
দুবেলা দুমুঠো খাবার জোগাড় করা যাদের কাছে কষ্টের, এই সমস্ত মিষ্টি ঘুরে ঘুরে ভবঘুরেদের হাতে তুলে দিলেন পাটিসাপটা, জয়নগরের মোয়া, নলেন গুঁড়ের রসগোল্লা সহ আরও বিভিন্ন ধরনের শীতকালীন মিষ্টি।

শীতকালে সকলেরই মন চায় একটু ভালমন্দ খেতে। কিন্তু এই ভবঘুরেদের কথা কেউ ভাবে না। সেই বিষয়টি উপলব্ধি করেই ফারুক এই উদ্যোগ নিয়েছেন। সারা বছর ধরে বিভিন্ন ধরনের সামাজিক কাজ করে থাকেন বছর পঁয়ত্রিশের এই যুবক। তিনি বলেন, “ বছরের প্রথম দিন অনেককেই দেখেছি বিভিন্ন ধরনের ভালোমন্দ খেতে। নলেন গুঁড়ের রসগোল্লা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের পিঠে পুলি খেয়ে এই শীতকালকে স্মরণীয় করে রাখছেন অনেকেই। কিন্তু এই সমস্ত ভবঘুরে মানুষগুলো যারা দুবেলা দুমুঠো খেতে পান না, তাদের কাছে এসব অলীক কল্পনা। তাই আমি একটু চেষ্টা করলাম ওদের জন্য”। শীতের সকালে এই ধরণের মিষ্টি হাতে পেয়ে খুশি ওই ভবঘুরেরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here