থানার সামনে থেকে টাকা ছিনতায়ের আটদিন পরেও গ্রেপ্তার হয়নি অভিযুক্তরা, নিম্নমানের সিসিটিভির ফুটেজে কালঘাম ছুটেছে পুলিশের

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ২৭ নভেম্বর: বালুরঘাটে থানার সামনে থেকে টাকা ছিনতাইয়ের আট দিন পরেও অধরা মূল অভিযুক্তরা। সিসিটিভির ফুটেজের নিম্নমানের ছবি দেখে অভিযুক্তকে চিনতে কালঘাম ছুটছে পুলিশের। প্রশ্ন চিহ্নে শহরের নিরাপত্তা। আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা।

মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকের দিনেই বালুরঘাটে থানার সামনে থেকে লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই হয় এক হাসপাতাল কর্মীর। যারপর ছিনতাইবাজদের ধরা তো দূরের কথা, সিসিটিভির ফুটেজে অভিযুক্তদের চিনতেই কালঘাম ছুটেছে পুলিশের। যাকে ঘিরেই শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছে বালুরঘাট থানার পুলিশ। শহর জুড়ে প্রায়ই ঘটে যাওয়া এমন ছিনতাইয়ের ঘটনার সঠিক কুলকিনারা না হওয়ায়, আতঙ্কে টাকা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

ডিএসপি সদর ধীমান মিত্র অবশ্য জানিয়েছেন, তদন্তের স্বার্থে এখন কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না। পুলিশ অতিদ্রুত অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

গত ১৯ তারিখে বালুরঘাটে একটি রাষ্ট্রায়াত্ব ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তুলে একটি টোটোতে বসে বাড়ি যাবার সময় বিহারের বাসিন্দা মহাদেব মন্ডল এবং নাতি মোহন মন্ডলের কাছ থেকে ১ লক্ষ ১২ হাজার টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে যায় মোটর বাইকে আসা দুই দুষ্কৃতী। বালুরঘাট হাসপাতালে কর্মরত ওই ব্যক্তি ঘটনার পরেই বিষয়টি জানিয়ে বালুরঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ সিসিটিভির ফুটেজকে হাতিয়ার করে ঘটনার তদন্তে নামলেও অভিযুক্তদের স্পষ্ট ছবি না থাকায় সেভাবে এগোতেই পারেনি। সিসিটিভির অত্যন্ত নিম্নমানের ফুটেজে একটি নম্বর প্লেটহীন মোটর বাইকের চিত্র ধরা পড়লেও দুই দুস্কৃতির পেছনের ছবি সামনে আসায় কাউকেই সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ বলে সুত্রের খবর। যার পরিপ্রেক্ষিতে সেরকম কোন সঠিক তথ্যও যাচাই করতে পারেনি বালুরঘাট থানার পুলিশ বলেও সুত্রের খবর। আর যাকে ঘিরেই পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়েছেন ওই বৃদ্ধ ও তার পরিবার।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here