ভর সন্ধ্যেয় দুটি দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে

আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ৬ জানুয়ারি :
শহরের দুই জায়গায় দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়। ঘটনা দুটি ঘটেছে রায়গঞ্জ থানার দেবীনগর এবং বীরনগর এলাকায়। সোমবার সন্ধ্যায় এমনই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো রায়গঞ্জ শহরে। দুটি চুরির ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

এদিন রায়গঞ্জে দেবীনগরের ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা অপু মজুমদার নামে রাজ্য আবগারি দফতরের মহিলা কর্মী। তিনি এদিন সন্ধ্যায় কর্নজোরা থেকে কাজ করে বাড়ি ফিরে অপু মজুমদার মূল গেট এবং দরজার তালা ভাঙ্গা অবস্থায় দেখে চিৎকার করলে সেই সময় ঘরে লুকিয়ে থাকা তিন দুষ্কৃতি দৌড়ে পালিয়ে যেতে থাকে। সেই সময় ওই মহিলার প্রতিবেশী এক যুবক তাদের পিছু নিলে ওই দুষ্কৃতীরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালানোর চেষ্টা করে বলে অভিযোগ।

অপু মজুমদার জানিয়েছেন, আমার বাড়ির মেন গেটের দরজার তালা ভাঙ্গার পাশাপাশি ঘরের দরজার তালা ভেঙ্গে ঢুকে সব কিছু তছনছ করে আলমারিতে থাকা ৩৫ হাজার টাকা নগদ ও ৫ ভোরি সোনা নিয়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। পাশাপাশি চুরির ঘটনা শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর প্রসেনজিৎ সরকার। একদল যুবক নেশাগ্রস্থ অবস্থায় রায়গঞ্জ শহর জুড়ে মাঝে মধ্যে এই ধরনের চুরি এবং ডাকাতির চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ।

অপরদিকে রায়গঞ্জ শহরের বীরনগর এলাকার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা বাবলি ধর। তিনি বেশ কয়েকদিন তার আত্মীয়ের বাড়িতে ঘুরতে গিয়েছে। এদিন সন্ধ্যায় তার ঘরের ভেতরে আলো জ্বলতে দেখেন স্থানীয় মানুষজন। স্থানীয় বাসিন্দারা বাবলি ধরের বাড়িতে ঢুকে দেখেন ঘরের তালা ভাঙ্গা। তারা ভেতরে ঢুকে দেখেন ঘরের সমস্ত জিনিস উলটপালট অবস্থায় পরে রয়েছে। তড়িঘড়ি স্থানীয় মানুষরা রায়গঞ্জ থানার খবর দিলে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। এদিনের সন্ধ্যায় দুটি দুঃসাহসিক চুরি ঘটনা খতিয়ে দেখছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here