থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে মন্দিরের লক্ষাধিক টাকার সোনার গহনা চুরি, চাঞ্চল্য হেমতাবাদে

স্বরূপ দত্ত, আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ১৬ অক্টোবর: থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে থাকা কালী মন্দির থেকে লক্ষাধিক টাকার সোনার গহনা চুরির ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদে। হেমতবাদ থানার মাত্র ৫০ মিটারের মধ্যে ” বিদ্রোহী ” ক্লাবের কালী মন্দির থেকে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে দুষ্কৃতীরা মা কালীর সোনার গহনা ও প্রণামী বাক্স থেকে নগদ টাকা লুট করে নিয়ে চম্পট দিয়েছে। মন্দিরের সিসিটিভি ক্যামেরা খতিয়ে দেখে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হেমতাবাদ থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, হেমতাবাদ থানার সামনেই মাত্র ৫০ মিটারের মধ্যেই রয়েছে বিদ্রোহী ক্লাবের ঐতিহ্যবাহী কালীমন্দির। মন্দিরে সিসিটিভি ক্যামেরা থাকার পাশাপাশি হেমতাবাদ থানার সিভিক ভলান্টিয়ার থাকে মন্দির চত্বরে। এমনকি থানা থেকেও পুরো মন্দির চত্বর নজরে থাকে। এমতাবস্থায় বৃহস্পতিবার রাতে কিভাবে মন্দির থেকে চুরির ঘটনা ঘটনা ঘটল তা নিয়েই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

মন্দির কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তা মনোজ মহন্ত জানিয়েছেন, সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে মন্দিরে কারা ঢুকেছিল তা বোঝা যাচ্ছে। তবে রাত ১টা ৩৭ মিনিট নাগাদ সিসিটিভি বিকল করে দেওয়ায় আর ছবি পাওয়া যাচ্ছে না। আপাতত যা দেখা যাচ্ছে হেমতাবাদে একটা বিশৃঙ্খলা তৈরি করতেই উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে এই কাজ করা হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে হেমতাবাদ থানার ওসি নিজে এসে পরিদর্শন করে গিয়েছেন। আমরা পুলিশকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করার জন্য বলেছি। মন্দিরের কালী মাতার সোনার মালা সহ প্রায় দেড় লক্ষ টাকার সামগ্রী চুরি গিয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হেমতাবাদ থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here