রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত মাত্র ৪, নবান্নে সাফল্যের খতিয়ান মুখ্যমন্ত্রীর

সৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা, ৩ এপ্রিল: গত কয়েকদিনে প্রবল হারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যু বাড়লেও শেষ পর্যন্ত করোনার অশ্বমেধের ঘোড়ায় লাগাম পরাতে পেরেছে স্বাস্থ্য দফতর। গত ২৪ ঘন্টায় মাত্র ৪ জন নতুন করোনা আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। নতুন করে কোনও মৃত্যুর খবর নেই। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর খুব ভাল কাজ করছে। শুক্রবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে রাজ্য সরকারের এমনই সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরলেন মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়েছিলেন রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪। সেই সংখ্যা মাত্র ৪ বেড়েছে বলেই এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।পাশাপাশি, তিনি জানান, এখনও পর্যন্ত মোট ১২ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। বাড়ি ফিরেছেন এই ১২ জনই। পাশাপাশি, এই সময় কোনও ব্যক্তির মৃত্যু করোনায় হয়নি বলেই দাবি মুখ্যমন্ত্রীর। এই রাজ্যে মোট ৫৯টি করোনা হাসপাতাল তৈরি করেছে রাজ্য সরকার, এটাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি জানান, সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবার থেকে এমআর বাঙুরে শুধু করোনার চিকিৎসা হবে। সেই কারণে সেখানকার সব রোগীকে এসএসকেএম ও শম্ভুনাথ পন্ডিতে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে। কারণ, সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উল্লেখ্য, এদিনই এমআরবাঙুরে মাস্ক, গ্লাভস, পিপিই পোশাক-সহ বিভিন্ন জিনিসের দাবিতে বিক্ষোভ করেন ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রী সেই প্রসঙ্গে বলেন, ‘টাকা না থাকা সত্ত্বেও আমরা এই সব জিনিসগুলি নিজেরাই অর্ডার দিয়েছি। তার মধ্যে বেশিরভাগই দিয়ে দেওয়া হয়েছে সব হাসপাতালে।আরও দেওয়া হবে। চিন্চা করবেন না।’

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা সমস্ত রাজ্যের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি, কে কোথায় খাদ্য পাচ্ছে না, কার কী সমস্যা আমরা সব দেখছি, সব ব্যবস্থা করছি। করোনা নিয়ে কেউ কেউ রাজনীতি করছেন, কিন্তু রাজনীতিকে আমল দেবেন না। বাংলা যা করে দেখিয়েছে, তা মডেল। কিছু জায়গায় রেশনের সমস্যা আছে। তা ঠিক হয়ে যাবে। খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে।’

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here