হকার উচ্ছেদকে ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা ইছাপুর স্টেশন চত্বরে

প্রতীতি ঘোষ, ব্যারাকপুর, ১৯ নভেম্বর: হকার উচ্ছেদকে ঘিরে শুক্রবার ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ালো শিয়ালদহ মেইন শাখার ইছাপুর স্টেশন চত্বরে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, স্টেশন চত্বরে অবৈধভাবে দখলদার হিসেবে থাকা তিনটি সাইকেল গ্যারেজ উচ্ছেদের জন্য পূর্ব রেলের তরফে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। শুক্রবার রেল পুলিশ ওই তিনটি দোকান উচ্ছেদের জন্য আসে। সেই সময় ওই দোকানের মালিকরা ও তৃণমূল কর্মীরা উচ্ছেদ কর্মসূচিতে বাধা দেয়। এতে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় ইছাপুর স্টেশন চত্বরে। উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় তা সামাল দিতে র‌্যাফ সহ ব্যারাকপুর কমিশনারেটের বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে হাজির ছিল। যদিও রেল কর্তৃপক্ষের তরফে আগামী ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়সীমা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় হকার রাজ ঠাকুর বলেন, তার সাইকেল গ্যারেজের জায়গা খালি করার জন্য রেল নোটিশ দিয়েছিল। এদিন রেল পুলিশ গ্যারেজ উচ্ছেদ করতে আসে। রেলের তরফে টেন্ডার জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আগামী ৬ ডিসেম্বর। তার আগেই ওরা উচ্ছেদ করার চেষ্টা করেছিল।

এই উচ্ছেদ প্রসঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার তৃণমূল যুব সাধারণ সম্পাদক ধীমান দাস বলেন, ওরা দখল করে বসে নেই। ওরা রীতিমতো রেলকে ভাড়া দেয়। রেলের টেন্ডার বেরিয়েছে। সেই টেন্ডার জমা দেওয়ার জন্য ওরা প্রস্তুতি নিয়েছে। তার পূর্বেই রেল কর্তৃপক্ষ উচ্ছেদের চেষ্টা করে। তৃণমূল কর্মীরা হকারদের পাশে দাঁড়িয়ে উচ্ছেদ রুখে দেয়। ধীমান বাবুর দাবি, ওরা রেলের নিয়ম মেনেই ব্যবসা করতে চায়। জোর করে উচ্ছেদ করা যাবে না।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here