জল, মাটি রাজনীতি! মতুয়া সমাজেই এবার প্রবল চাপে বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর

নীল বনিক, সুশান্ত ঘোষ, আমাদের ভারত, ১১ আগস্ট: মতুয়া সমাজের মধ্যেই এবার প্রবল চাপে বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। ঠাকুরনগরের মাটি ও জল পাঠানো হয়েছিল অযোধ্যায়। কিন্তুু সেই জল,মাটি প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ঠাকুরবাড়ির শান্তনু ঠাকুরের বিরুদ্ধে লবির মতুয়ারা। আর এমন ইস্যুতে বঁনগার বিজেপি সাংসদের বিরুদ্ধে পথে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মমতাবালা গোষ্ঠীর সদস্যরা। শান্তনু ঠাকুরের অভিযোগ, এর পিছনে তৃণমূলের চক্রান্ত রয়েছে। মতুয়াদের ভুল বোঝাচ্ছে তৃণমূল।

রবিবার ঠাকুরনগরে শান্তুনু ঠাকুরের বিরুদ্ধে ঠাকুরবাড়িতে একটি বৈঠক হয়। সেই বৈঠকে ঠিক হয়েছে আইনজীবীর মাধ্যমে তাঁরা তথ্যের অধিকার আইনে রাম জন্মভূমির কাছে জানতে চাইবেন ঠাকুরনগরের মাটি ও জলের কি হলো? এই ইস্যুকে সামনে রেখে এবার শান্তনু ঠাকুরকে কোনঠাসা করার কাজ শুরু করলো মমতা বালা গোষ্ঠীর সদস্যরা।

প্রসঙ্গত, রামমন্দির নির্মাণে এরাজ্যের বিভিন্ন ধর্মীয় স্থান থেকে জল ও মাটি গিয়েছে অযোধ্যায়। তারমধ্যে ঠাকুরনগরের মাটি ও কামনাসাগরের জল গিয়েছে অযোধ্যায়। কিন্তুু সেই মাটি জল গ্রহন করা হয়নি বলে অভিযোগ তুলেছেন ঠাকুরবাড়ির একটি অংশ।

এব্যাপারে শান্তনু ঠাকুর বলেন, অযোধ্যায় মতুয়া সংঘের ঠাকুরবাড়ি থেকে যে জল, মাটি পাঠানো হয়েছিল তা রামমন্দিরে দায়িত্বে থাকা সংগঠন গ্রহন করেছেন। তারা আমাকে প্রসাদও পাঠিয়েছে। এই ঠাকুরবাড়ির জল মাটি নিয়ে তৃণমূল মতুয়াদের ভুল বুঝিয়ে রাজনৈতিক খেলায় নেমেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here