রাজ্যের মৃত্যুহার কমাতে এবার প্রত্যেক কোভিড হাসপাতালে বিশেষ টিম গঠনের নির্দেশ

রাজেন রায়, কলকাতা, ২৫ জুন: করোনায় পশ্চিমবঙ্গে সুস্থতার হার বাড়লেও মৃত্যুর হার এখনও অনেক বেশি। সম্প্রতি করোনা প্রাণ কেড়েছে তৃণমূলের এক বিধায়কেরও। এবার রাজ্যে মৃত্যুহার নিয়ন্ত্রণে আনতে সমস্ত কোভিড হাসপাতালগুলিকে কুইক রেসপেন্স টিম গঠন করতে নির্দেশ দিল রাজ্য সরকার। পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হার কমানো রীতিমতো চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেছেন স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

নবান্ন সূত্রে খবর, এক সময়ে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় মৃত্যুর হার দেশের মধ্যে শীর্ষে ছিল।এখন বড় রাজ্যের মধ্যে মহারাষ্ট্র (৪.৭%) ও গুজরাত (৫.৯%) পশ্চিমবাংলার চেয়ে বেশি। কিন্তু এখনও বাংলার মৃত্যুর হার (৩.৮ শতাংশ) জাতীয় গড়ের (৩.১ শতাংশের) চেয়ে বেশি। প্রত্যেকদিনই গড়ে পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হচ্ছে ১১-১৫ জনের। কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় মৃত্যু হার ৫.৩ শতাংশ, শুধু কলকাতাতেই সেটা ৬.৯ শতাংশ।

প্রাথমিক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, প্রথম দিকে করোনা রোগীদের চিকিৎসা শুরু হতে দেরি হয়ে গিয়েছে। ফলে পরে রোগীর স্বাস্থ্যের অবনতি আটকানো যাচ্ছে না। তবে সময় মতো চিকিৎসা দিতে পারলে মৃত্যুহার অনেকটাই কমানো যেতে পারে।

স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, প্রত্যেক হাসপাতালের ক্যুইক রেসপন্স টিমে থাকবে একজন অ্যানেস্থেটিস্ট, মেডিক্যাল অফিসার, হাউস স্টাফ, বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত নার্স ও একজন পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ট্রেনি। ২৪ ঘণ্টা সক্রিয় থাকবে এই দল। ইতিমধ্যে বেশ কিছু হাসপাতালে এমন দল পরীক্ষামূলক ভাবে নিযুক্ত করা হয়েছে। এবার তা রাজ্যের সমস্ত হাসপাতালে ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। বেশি পরিমাণে শারীরিক অসুস্থ এবং কো-মরবিডিটির শিকার করোনা রোগীদের ওপর বিশেষ নজর রাখতে তৈরি করা হচ্ছে এই টিম।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here