একেবারে আলাদা হবে এবারের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন, একাধিক নির্দেশিকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

আমাদের ভারত, ২৪ জুলাই:
প্রতিবারের মতো এবারও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লালকেল্লায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু করোনা ভাইরাসের মত মহামারীর পরিস্থিতিতে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন এবছর অন্যবারের থেকে অনেকটাই আলাদা হতে চলেছে।

অন্যবার লালকেল্লায় যে পরিমাণ মানুষের জমায়েত হয় তার চেয়ে অনেক কম মানুষ থাকবেন এবারের অনুষ্ঠানে বলে জানা গেছে। দিন কয়েক আগে দেশের সামনে আত্মনির্ভর ভারত হওয়ার দিশা দেখিয়েছেন মোদী। সেই দিক নির্দেশিকা মেনেই এবার স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানেও সেই আত্মনির্ভর ভারতের রূপ দেখা যাবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে এ বিষয়ে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে নির্দিষ্ট নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। সব রাজ্যকে স্বাধীনতা দিবসের উদযাপন নিয়ে একেবারে কড়া অ্যাডভাইজারি পাঠিয়ে দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক পড়া, স্যানিটাইজেশনে ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অনুষ্ঠানে সরাসরি অতিথির সংখ্যা কম থাকলেও ওয়েবকাস্টের মাধ্যমে দেশবাসীর কাছে অনুষ্ঠান পৌঁছে দেওয়া হবে। বিভিন্ন রাজ্যের কাছেও উন্নত তথ্য প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে অনুষ্ঠান সম্প্রচারের জোর দেওয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করতেই অনুষ্ঠানে আমূল বদলে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সব রাজ্যই যাতে এই অনুষ্ঠানে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আমন্ত্রণ জানায় তার নির্দেশ পাঠানো হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে। একইসঙ্গে করোনা জয়ীদের আনার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

১৫ আগস্ট মিলিটারি ব্যান্ডের রেকর্ড করা ভিডিও স্ক্রিনে দেখানো হবে। ডিজিটাল-ই এবারের স্বাধীনতা উদযাপনের উপর জোর দেওয়া হচ্ছে।

প্রতিবছর রাজভবনে স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যের আধিকারিকদের ডাকার প্রথা রয়েছে। এবার সেই প্রথা পালন হবে কিনা বা আলাদা আলাদা রাজ্যের রাজ্যপাল নিজেরা সিদ্ধান্ত নেবেন। মন্ত্রকের তরফের বলা হয়েছে অ্যাট হোম কার্যক্রম হলে তাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেই হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here