প্রসূতি মায়ের মৃত্যু ঘিরে ধুন্ধুমার বগুলা রুরাল হাসপাতাল, দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ মৃতের আত্মীয়দের

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া ১৭ ডিসেম্বর: প্রসূতি মায়ের মৃত্যু ঘিরে বিক্ষোভ নদিয়ার হাঁসখালি থানার বগুলা রুরাল হাসপাতালে। দীর্ঘক্ষণ মৃতের আত্মীয়দের বিক্ষোভ হাসপাতাল ঘিরে।

বগুলা হাসপাতালে লিপিকা বিশ্বাস নামে ২৬ বছরের এক গৃহবধূকে ভর্তি করা হয়। প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হয় ঐ প্রসূতি। প্রসব যন্ত্রণা ওঠায় কর্মরত চিকিৎসক তাকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যায়। এরপর অ্যানাথেসিয়া করার পর ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়। তারপরই তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এরপর তড়িঘড়ি চিকিৎসকরা তাকে শক্তি নগরে নিয়ে যাওয়ার জন্য ব্যবস্থা করে দেয়। শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথে মৃত্যু হয় ঐ প্রসূতির। এরপর রোগীর পরিজন যখন জানতে পারে মৃত্যুর খবর তখন ক্ষোভে বগুলা হাসপাতাল ঘেরাও করে। ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে বলে তারা দাবি করে দীর্ঘক্ষণ ধরে বিক্ষোভ দেখায়। মৃত লিপিকা বিশ্বাসের আত্মীয় পরিজনেরা হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাঁসখালি থানার পুলিশ গিয়ে বিক্ষোভ তুলে দেয়।

জানা যায় লিপিকা বিশ্বাসের বাড়ি ভায়না পূর্বপাড়ায়। তাঁর বাবার নাম রামচন্দ্র বিশ্বাস, স্বামীর নাম তাপস বিশ্বাস। তার বিয়ে হয় হাঁসখালি থানার বেনালি গ্রামে। লিপিকার আত্মীয় পরিজনের অভিযোগ ভুল চিকিৎসায় মারা গেছে লিপিকা। তাকে ভুল ইনজেকশন দেওয়া হয়েছে তার পরে তার অবস্থার অবনতি হয়। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হাঁসখালি থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here