বাঘ নয় বেড়াল! জেলে চাকি পিষছেন, চাল পাঠিয়ে দেব, পিষে সিন্নি করবেন, অনুব্রতর গড়ে দাঁড়িয়ে চুড়ান্ত কটাক্ষ সুকান্তর

আমাদের ভারত, ২৭ নভেম্বর:
অনুব্রত গড়ে দাঁড়িয়েই তাকে তোপ দাগলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। বীরভূমে নবান্ন উৎসবের যোগ দিতে গিয়ে সুকান্ত মজুমদার বলেন, অনুব্রত মণ্ডলকে জেলে চাল পাঠাবো পিষে সিন্নি বানাবেন। একই সঙ্গে অনুব্রতকে বেড়াল বলেও কটাক্ষ করেছেন তিনি।

আগামী বছরই পঞ্চায়েত নির্বাচন। তাই নয়া উদ্যমে ময়দানে নেমেছে পদ্ম শিবির। সারা রাজ্যে একের পর এক কর্মসূচি নিয়েছে তারা। এই কর্মসূচির অংশ হিসেবে রবিবার নবান্ন উৎসব উপলক্ষে বোলপুরে সাংগঠনিক জেলার মল্লারপুরে গোয়ালা গ্রামে যান সুকান্ত মজুমদার। সেখানে বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলেন। সকালে এক দলীয় কর্মীর বাড়ির বারান্দায় বসে কলা পাতায় নতুন ধানের চালের গুঁড়ো, কলা নারকেল গুড়ের মিষ্টি খান। দুপুরে মাধ্যাহ্ন ভোজও সারেন সেখানে বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

অনুব্রত মণ্ডলকে কটাক্ষ করে সুকান্ত মজুমদার বলেন, “নবান্ন উপলক্ষে অনুব্রত মণ্ডলকে জেলে কিছুটা চাল পাঠিয়ে দেব। উনি তো ওখানে চাকী পিষছেন, আমি চাল পাঠাবো, পিষে সিন্নি করে নেবেন।”

খাওয়া-দাওয়ার পর মল্লারপুরের নিমিতলার মাঠে সভা করেন সুকান্ত। সেখানেও নিশানা করেন অনুব্রতকে। তার কথায়, “অনেকে বলে বাঘ জেলে আছে। আমি বলি বাঘ না উনি বাঘের মাসি। মাসির কত ছেলে পুলে হয় জানেন তো? মাসির ছেলেরা বাইরে কাউমাউ করছে। আপনারা হাতের সামনে পেলেই ধরুন আর জেলে পাঠান।”

এর পাল্টা দিতে দিতে গিয়ে, তৃণমূলের মুখপাত্র মলয় মুখোপাধ্যায় বলেন, গোটা রাজ্যে বিজেপি মানুষের সঙ্গে এভাবেই চালবাজি করে চালাচ্ছে, মানুষ এটা ধরে ফেলেছে। বিধানসভা নির্বাচনের ফলেই মানুষ বিজেপিকে তা বুঝিয়ে দিয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here