নবান্ন উৎসবে তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষ, আহত ৮, গ্রামে পুলিশ পিকেট

আমাদের ভারত, সিউড়ি, ৯ ডিসেম্বর: গ্রামে নবান্ন অনুষ্ঠানকে ঘিরে তৃণমূল- বিজেপি দুই পক্ষের সংঘর্ষ উত্তাল হল সিউড়ি থানার রস্তানপুর গ্রাম। দুই রাজনৈতিক লড়াইয়ে দু’পক্ষের আট জন জখম হয়। ভাঙ্গচুর করা হয় দুই বিজেপি কর্মীর বাড়িতে। ভেঙ্গে ফেলা হয় মোটরবাইক। বিজাপি কর্মীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। পাল্টা তৃণমূল কর্মীদের মারধরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। দুই পক্ষের মধ্যে চলে বোমাবাজি।

রবিবার গ্রামে নতুন ধানের উৎসব– নবান্ন ছিল। তাকে কেন্দ্র করেই ঝামেলার সূত্রপাত। সন্ধ্যা আটটা নাগাদ দু’পক্ষের সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়। অভিযোগ, বিজেপির এক কর্মীর বাড়িতে নবান্ন উপলক্ষ্যে এক আত্মীয় এসেছিল। সেই আত্মীয়’কে কেন্দ্র করে প্রথমে বচসা হয়। মারধর করা হয় সেই আত্মীয়কে। বিজেপির অভিযোগ, গণেশ বায়েন, সুশীল বায়েনের ঘরে হামলা চালায়। মারধরে ছবি বায়েনের মাথা ফাটে। সদলবলে এসে বাড়ি ভাঙ্গচুর করে তৃণমূল কর্মীরা। মাধবী বায়েনের দাবি, তখনই মারধর করা হয় বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের।

পাল্টা তৃণমূলের অভিযোগ তৃণমূলের, বিজেপি কর্মীরা অতর্কিতে তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে, মারধর করা হয়েছে। এই ঘটনায় দুই পক্ষের আট জন আহত হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই গ্রামে পৌঁছয় সিউড়ি থানার পুলিশ। প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

আহত সকলকেই সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নতুন করে যাতে কোনো রকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য রাতেই গ্রামে পুলিশ ক্যাম্প বসান হয়। সোমবারও গ্রামে চলে পুলিশি টহলদারি। পাশাপাশি বাড়ি ভাঙ্গচুর, বোমাবাজি ও মারধরের ঘটনায় দুই পক্ষের আটজনকে আটক করে সিউড়ি থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here