দাঁতনে তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষ, জখম ৬ 

আমাদের ভারত, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৮ জুন: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে ফের উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন এলাকা। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন দু’পক্ষের ৬ জন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৩ জন মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনাকে কেন্দ্র করে বুধবার দুপুরে দু’পক্ষের মধ্যে বচসার সূত্রপাত হয়। সেই সময় তা মিটে গেলেও রাত দশটা নাগাদ তৃণমূল কর্মীরা লাঠি রড নিয়ে বিজেপি কর্মীদের ওপর অতর্কিতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে চার বিজেপি কর্মীর জখম হওয়ার খবর জানা গেছে। প্রথমে তাদের দাঁতন গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা দুই বিজেপি কর্মীকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করে। 

এদিকে বিজেপির পাল্টা মারে দুজন তৃণমূল কর্মীও আহত হয়েছেন বলে খবর। তাদের দাঁতন গ্রামীণ  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এক তৃণমূল কর্মীর মাথায় আঘাত লাগায় মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা  হয়েছে। সংঘর্ষের বিষয়ে বিজেপির জেলা সভাপতি শমিত কুমার দাস অভিযোগ তুলে বলেছেন, পুলিশের প্রশয়েই দাতনে বিজেপি কর্মীদের মারধর করেছে তৃণমূল। গোটা ঘটনায় পুলিশকে দায়ী করে তীব্র ভাষায় প্রশাসনের সমালোচনা করেছেন জেলা বিজেপির সভাপতি। 

অন্যদিকে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতির দাবি, তৃণমূল কর্মীদের ওপর প্রথমে হামলা চালিয়েছে বিজেপি কর্মীরা, এরপরেই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে তৃণমূল কর্মীরা। দুপক্ষই পরস্পরের বিরুদ্ধে দাঁতন থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। দু’দলের সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here