সরকারি নির্দেশিকা অমান্য করে তৃণমূলের রক্তদান শিবির

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ২৯ জুলাই: লকডাউনের দিনে রক্তদান শিবির। উদ্যোক্তা খোদ যুব তৃণমূল কংগ্রেস নেতা। ঘটনাটি দক্ষিণ ২৪ পরগণার ভাঙড়ের কাঠালিয়া এলাকার। লকডাউনের সরকারি নির্দেশিকাকে অমান্য করে এলাকার যুব তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা ভোগালী ২ গ্রাম পঞ্চায়েত যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সাহানুর ইসলাম বুধবার লকডাউনের দিনে ব্যবস্থা করেন রক্তদান শিবিরের।

এদিনের শিবিরে ৬০ জন রক্তদাতা রক্তদান করেন। রক্তদাতাদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। যা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জল্পনা। সরকার যেখানে করোনা থেকে মুক্তির আশায় একের পর এক লকডাউনের দিন ঘোষণা করে চলেছে সেখানে কি করে এই রক্তদান শিবির করা সম্ভব? এমন প্রশ্নে কার্যত উল্টোপূরাণ তৃণমূল নেতার। তিনি জানান, “অনেক আগেই দিনটি ঠিক করা ছিল, তাছাড়া বর্তমানে রক্তের প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রেখেই এই ব্যবস্থা”। এদিনের এই রক্তদান শিবিরে এলাকার তৃণমূল নেতা তথা দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলা পরিষদ সদস্য নান্নু হোসেন উপস্থিত হয়ে জানান, “এলাকার স্বার্থে, দেশের স্বার্থে এই রক্তদান শিবির। কঠিন এই সময়ে রক্তের খুব প্রয়োজন, সেকারণে আমি উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানাই”।

যদিও এলাকার বিজেপি নেতা অবনী মণ্ডল জানান, “তৃণমূল নেতারা লকডাউন মানেন না। এলাকার লকডাউন ভাঙাড় জন্য সব থেকে বেশী দায়ী তৃণমূল নেতারাই। তাছাড়া কঠিন এই সময়ে সরকার যেখানে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেছে সেখানে পুলিশ এই শিবিরের অনুমতি দেয় কি করে?” স্বাভাবিক ভাবে তৃণমূল নেতার রক্তদান শিবির নিয়ে শুরু হয়ে জোর জল্পনা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here