তৃণমূল এখন সর্বকাড়ার দল: জয়

আমাদের ভারত, হাওড়া, ২৬ জুলাই: তৃণমূলের প্রতি মানুষ এখন বীতশ্রদ্ধ, যেরকম ২০১১ সালে সিপিএমের উপর মানুষ বীতশ্রদ্ধ ছিল এখন তৃণমূলের প্রতি সেটা হয়েছে। এক সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলতেন সিপিএম সর্বহারার দল হলেও সর্বকাড়ার দল। আর এখন তৃণমূল সেই সর্বকাড়ার দলে পরিণত হয়েছে বলে দাবি করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার বাগনানের আন্টিলা জানাপাড়ায় কার্গিল বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক রক্তদান শিবিরে যোগ দিতে এসে জয় এই কথা বলেন।

এদিন জয় বলেন, তৃণমূল রাজ্যের মানুষের কাছ থেকে স্বাস্থ্য, শিক্ষা কেড়ে নেওয়ার পর এবার বিদ্যুৎও কেড়ে নিচ্ছে। একসময় এমন দিন আসবে যে বিদ্যুতের বিলের ভয়েতে মানুষ বাড়িতে আলো জ্বালাতে সাহস পাবে না। আর সেই কারণে বাংলার মানুষ এখন তৃণমূলের প্রতি বীতশ্রদ্ধ। বাংলার মানুষ এখন বিজেপিকে চাইছে। তৃণমূলের পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোর সম্পর্কে জয় বলেন, তৃণমূলের প্রশান্ত কিশোর থাকলেও বিজেপির অমিত শা’য়ের বুদ্ধির কাছে সেটা কিছুই নয়। তিনি বলেন, অমিত শা’য়ের বুদ্ধি আজ সারা বিশ্বে প্রশংসিত আর সেই কারণেই ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদী অমিত শা’য়ের নেতৃত্বে বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় এসে শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জিকে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করবে।

মুকুল রায়কে নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর খবর সম্পর্কে জয় বলেন, কে কি বলল সেটা জানি না। তবে এটা জানি মুকুল রায় বিজেপিতে ছিলেন আছেন এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন। এদিন জয় বলেন, সারা দেশের পাশাপাশি এই রাজ্যেও এক কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। অজানা ভাইরাস করোনা সংক্রমণে দিনের পর দিন আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে রক্তের খুব প্রয়োজন। আর এই পরিস্থিতির মধ্যে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় কাজ। এদিন জয় বলেন, রাজ্যের একজন নাগরিক এবং উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের গতবারের প্রার্থী হিসেবে উলুবেড়িয়ার সকল মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর পাশাপাশি মনে শান্তি আনাটা আমার প্রথম কাজ আর আমি সেটা করে দেখাব।

এদিনের এই অনুষ্ঠানে রক্তদাতাদের উৎসাহ দেওয়ার পাশাপাশি বৃক্ষ রোপণ ও মানুষদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করেন জয়। এদিনের এই অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির হাওড়া গ্রামীণ জেলার প্রাক্তন সভাপতি অনুপম মল্লিক সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃবৃন্দ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here