জয়পুরে যুব তৃণমূল নেতার ওপর সশস্ত্র হামলা, অভিযোগের তির বিজেপির দিকে

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ১৮ জুন: জয়পুর যুব ব্লক সভাপতি দিব্য জ্যোতি সিং দেও’ র উপর সশস্ত্র হামলার ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ জানাল পুরুলিয়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেস। বৃহস্পতিবার, বিকেলে জয়পুর ব্লক সদরের আটা কল মোড়ে জমায়েত হয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে তৃণমূল। ঘটনায় সরাসরি বিজেপির উপর অভিযোগের তীর আক্রান্ত যুব তৃণমূল নেতা। তিনি বলেন, ‘জয়পুরে বিজেপির যেটুকু মাটি ছিল তা সরে যাচ্ছে। তাদের উপর মানুষের উপর ভরসা উঠে যাচ্ছে। এছাড়া আমার জনসংযোগ দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়ায় আশঙ্কিত হয়ে পড়েছে বিজেপি। তাই ধমক চমক দিয়ে আমাকে দমানোর চেষ্টা করছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।’ ঘটনার বিবরণ জানিয়ে জয়পুর থানায় অভিযোগ করেছেন এই যুব তৃণমূল নেতা।

দব্লক যুব সভাপতি দিব্যজ্যোতি সিং দেও বুধবার রাতে একটি বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠান সেরে জয়পুর থানার শিয়ালগাড়া গ্রাম থেকে সতীর্থ রানা প্রতাপ ব্যানার্জির সঙ্গে নিজের গাড়িতে বাড়ি ফিরছিলেন। ঘাঘরা গ্রাম পার হয়ে ডিমডিহা গ্রাম ঢোকার আগে বাঁকে মুখ ঢাকা হাতে ব্যাগ নিয়ে দুই জন তাঁর গাড়ি থামার জন্য হাত দেখান। পরিযায়ী শ্রমিক ভেবে গাড়ি থামিয়ে তাঁদের গন্তব্যস্থল জিজ্ঞাসা করেন তৃণমূল যুব নেতা দিব্যজ্যোতি। ওই দুই জন ডামরুঘুটু  গ্রাম যাব বলতেই তাদের বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে গাড়ির পিছনে উঠতে বলেন দিব্য জ্যোতি। গাড়িতে উঠেই সশস্ত্র দুই দুষ্কৃতী হামলা চালায় দিব্যজ্যোতি ও তাঁর সতীর্থর উপর। গলা টিপে ভোজালি বুকে ঠেকিয়ে ‘বেশি বাড়া বাড়ি করলে গুলি করে শেষ করে দেব ‘ বলে হুমকি দেয় দুষ্কৃতীরা। ওই অবস্থায় গাড়ি থেকে নামতে গিয়ে দিব্যজ্যোতি দেখেন চার-পাঁচজন সশস্ত্র দুষ্কৃতী তাঁর উপর হামলা চালাতে শুরু করে । দুষ্কৃতীদের একজন লোহার রড নিয়ে তৃণমূল যুব নেতার মাথায় আঘাত করার মুহূর্তে সরে যেতেই গাড়ির কাঁচের পড়ে। লোহার রডের ধাক্কায় চুরমার হয়ে যায় গাড়ির কাঁচ।  ওই মুহূর্তে উল্টোদিক থেকে অন্য একটি গাড়ি আসতেই দুষ্কৃতীরা পালিয়ে অন্ধকারে গা-ঢাকা দেয়।  ঘটনার পর মানসিকভাবে বিধ্বস্ত অবস্থায় কোনরকমে বাড়ি ফেরেন তৃণমূল ওই যুব নেতা।

ঘটনার খবর পেতেই উদ্বেগ দেখা দেয় জেলা তৃণমূলে।  ঘটনার খোঁজ নেন তৃণমূল যুব জেলা সভাপতি সুশান্ত মাহাতো। শুক্রবার, বাড়িতে গিয়ে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়া যুব তৃণমূল নেতা দিব্য জ্যোতিকে ভরসা যোগান রাজ্যের মন্ত্রী তথা পুরুলিয়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি শান্তিরাম মাহাতো, স্থানীয় বিধায়ক শক্তিপদ মাহাতো। বিকেলের দিকে যুব নেতার বাড়িতে যান জেলা সভাধিপতি সুজয় ব্যানার্জি জেলা পরিষদের মেন্টর জয় ব্যানার্জি প্রমুখ তৃণমূল নেতৃত্ব। পরে তাঁরা দলীয় বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

এদিকে দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়ে বিজেপি জেলা সহ-সভাপতি তথা জয়পুরের বাসিন্দা রবিন সিং দেও বলেন, ‘এইরকম রাজনীতিতে আমরা বিশ্বাস করি না। দুষ্কৃতী দিয়ে হামলা ধমকানো চমকানো আমাদের দলের কাজ নয়। মানুষের উপর বিশ্বাস ভরসা ও বিশ্বাস এই আমাদের ভরসা ও ভিত্তি। এই ঘটনা আমরাও নিন্দা প্রকাশ করছি। তবে, এটা তৃণমূলেরই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জের। তাদেরই অন্তরকলহের বহিরপ্রকাশ এই হামলার ঘটনা।’

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here