চাকরির নামে কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে

আমাদের ভারত, তমলুক, ২০ ডিসেম্বর: চাকরি দেওয়ার নামে কোটি কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধক্ষ্য সোমনাথ বেরার বিরুদ্ধে। শুক্রবার এই অভিযোগ তুলেছেন জেলা তৃণমূলের বিভিন্ন পদের নেতা কর্মীরা।

রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠক করে তমলুক ব্লকের তৃণমূলের বিভিন্ন পদের নেতারা অভিযোগ করেন ২০১২ সাল থেকে প্রাথমিক শিক্ষক পদে, অঞ্চলের স্ব- সহায়ক পদে এবং গ্রুপ ডি পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে প্রায় দু কোটি টাকা  নিয়েছেন সোমনাথ বাবু, কিন্তু চাকরির কিছু হয়নি। টাকা ফেরতের তাগাদা দিলে বেশ কয়েক জনকে প্রায় ষাট লাখ টাকার চেক দেন। কিন্তু ঐ সমস্ত চেক বাউন্স করে। এই ব্যাপারে সোমনাথ বেরার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে ফোনে পওয়া যায়নি। জেলা পরিষদের নিজস্ব অফিসেও তিনি অনুপস্থিত।নিজের দলের নেতা কর্মীদের চাকরি দেওয়ার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগে অস্বস্তিতে পড়েছেন জেলা তৃনমূল নেতৃত্ব।

অপরদিকে বিজেপির তমলুক সাংগঠনিক জেলার সভাপতি নবারুণ নায়েকের বক্তব্য, কাটমানির ভাগ অধিকারী পরিবারে কম যাওয়ায় নিজের দলের নেতা কর্মীদের উস্কানি দিয়ে এই প্রেস মিট করানো হয়েছে।কারন সোমনাথ বেরার বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। তারপরেও সাংসদ নির্বাচনে তৃনমূল প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারীর হয়ে নির্বাচনী এজেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি শিশির অধিকারী জানিয়েছেন, বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here