পার্টি অফিসে হাজিরা না দিলেই খাওয়া হবে সিভিকদের চাকরি, বালুরঘাটে “দিদিকে বলো”র প্রচারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি তৃণমূল নেতাদের

পার্টি অফিসে হাজিরা না দিলেই খাওয়া হবে সিভিকদের চাকরি, বালুরঘাটে “দিদিকে বলো”র প্রচারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি তৃণমূল নেতাদের

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ১৪ আগস্ট: পার্টি অফিসে হাজিরা না দিলেই সিভিকদের চাকরি খাবে তৃণমূল নেতারা। দিদিকে বলোর প্রচারে গিয়ে বালুরঘাট শহর জুড়ে হুমকি দেবার অভিযোগ তৃণমূল নেতৃত্বদের বিরুদ্ধে। ভীত সন্ত্রস্ত সিভিকদের পরিবার। অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা বলল শহর তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি। অনৈতিক কাজ করিয়ে সিভিকদের বিপদে ফেলার চেষ্টা করছে তৃণমূল দাবি বিজেপি সংসদের।

রাজ্য জুড়ে দলীয় নেতা নেত্রী ও এলাকার উন্নয়ন অনুন্নয়ন নিয়ে অভাব অভিযোগ জানাতে দিদিকে বলো কর্মসূচি চালু করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার প্রচার ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বালুরঘাট শহরের ২৫ টি ওয়ার্ডে। যে সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সিভিক ভলান্টিয়ারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভীতি প্রদর্শন করছেন তৃণমূল নেতৃত্বরা বলে অভিযোগ। পার্টি অফিসে না গেলেই তাদের চাকরি খেয়ে নেওয়া হবে এমনটা বলেও হুমকি দিচ্ছেন শহরের বেশ কিছু তৃণমূল নেতৃত্বরা বলেও অভিযোগ। যার জেরে কিছুটা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছেন অনেক সিভিক ভলান্টিয়ার ও তাদের পরিবার। সংসারের বাড়তি রোজগারের আশায় নিজেদের কাজ সেরে অধিকাংশ সিভিকই অবসর সময়ে অন্য কাজ করে টাকা উপার্জন করেন। অভিযোগ, এমন সব সিভিক
ভলান্টিয়ারদের টার্গেট করে তাদের বাড়ি গিয়ে দিদিকে বলোর প্রচারের নামে ভীতি প্রদর্শন করছেন বালুরঘাট শহর তৃণমূল নেতাদের একাংশ। বেশ কয়েকদিন ধরে শহর জুড়ে চলা এমন ঘটনা সামনে আসতেই আলোড়ন পড়েছে বালুরঘাটে। যা নিয়ে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়েছেন শহর নেতৃত্বদের একাংশও।

বালুরঘাট শহর তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি সুজয় সাহা জানিয়েছেন, এমন ঘটনা তার কানেও এসেছে। এ ধরনের ঘটনা হওয়া উচিত নয়। অত্যন্ত নিন্দনীয় একটি ঘটনা।

বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার এ ঘটনার তীব্র নিন্দা করে বলেন, কিছু সিভিক ভলান্টিয়ার রয়েছে তৃণমূল ঘেঁষা। কিন্তু বেশিরভাগই রয়েছে নিরপেক্ষ। তাদেরকে ভয় দেখিয়ে অনৈতিক কাজ করিয়ে বিপদে ফেলার চেষ্টা করছে তৃণমূল কংগ্রেস। যা থেকে তাদের নিজেদেরই সাবধান হওয়া উচিত।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × five =