সরস্বতী পুজোর কমিটি নিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, ব্যাপক ভাঙ্গচুর দীনবন্ধু কলেজে

আমাদের ভারত, বনগাঁ, ২১ জানুয়ারি: বনগাঁর দীনবন্ধু কলেজে কলেজে সরস্বতী পুজোর কমিটি তৈরি নিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ। ভাঙ্গচুর করা হয় কলেজে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন ছাত্রছাত্রী আহত হয়েছেন।

সরস্বতী পুজোর কমিটি নিয়ে মতবিরোধের ফলে সকাল থেকে বিক্ষোভ শুরু হয় বানগাঁর দীনবন্ধু কলেজে। পুজোর জন্য যে কমিটি তৈরি হয়েছে তা মানতে নারাজ টিএমসিপির অন্য গোষ্ঠী। তারা সকাল থেকে বিক্ষোভ দেখায়। বিক্ষোভে বাধা দিতে গেলে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ বাধে। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, বহিরাগতদের কলেজে ঢুকিয়ে ভাঙ্গচুর চালায় কলেজের একাধিক বিভাগে।

জানাগেছে, টিএমসিপির এক গোষ্ঠীর দাবি, গত শনিবার কলেজের নতুন পরিচালন সমিতির নির্দেশে সরস্বতী পুজো ও কলেজের অনুষ্ঠানের জন্য নতুন কমিটি তৈরি হয়। মঙ্গলবার নতুন কমিটির বিরোধীতা করে টিএমসিপির অন্য এক গোষ্ঠী। এই নিয়ে আজ কলেজ চত্বরে বিক্ষোভ দেখায়। নতুন কমিটির সদস্যরা বিক্ষোভে বাধা দিতে গেলে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ বাধে। কলেজ চত্বরে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পক্ষ বহিরাগত কিছু ছাত্র নিয়ে এসে কলেজের বাণিজ্য ও বিজ্ঞান বিভাগে ভাঙ্গচুর চালায় বলে অভিযোগ। ভাঙ্গচুর করা হয় সিসিটিভি ক্যামেরা, কলেজের বেসিন, গাছ সহ একাধিক নোটিশ বোর্ড।

খবর পেয়ে বনগাঁ থানার পুলিশ গিয়ে উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে আনে। দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ফলে আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রী। তাঁদের বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রথমিক চিকিৎসা করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ ডক্টর বিশ্বজিৎ ঘোষ জানান, সরস্বতী পুজোর কমিটি নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। কারা ভাঙ্গচুর করেছে সে বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here