রায়গঞ্জে করোনায় আক্রান্ত এক টোটো চালক, আতঙ্কিত বাসিন্দারা বন্ধ করল টোটোতে সফর

স্বরূপ দত্ত, আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ১৫ জুন: রায়গঞ্জ শহরের বীরনগর এলাকায় এক টোটো চালকের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় আতঙ্কিত বাসিন্দারা। তারা টোটোতে সফর করা প্রায় বন্ধ করে করে দিয়েছে। আর তাতে চরম সমস্যায় পড়েছেন রায়গঞ্জ শহরের টোটো চালকরা। ফলে রুটি রুজিতে টান পড়েছে টোটো চালকদের। যদিও রায়গঞ্জ পুরসভার পক্ষ থেকে করোনা আক্রান্ত টোটো চালককে রায়গঞ্জ কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করার পাশাপাশি তার পরিবারের লোকজনদের সরকারি কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়ে দিয়েছেন। স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে বিশেষ নজরে রাখা হয়েছে ওই এলাকা। কিন্তু শহরের মানুষের আতঙ্ক এতটুকুও কমেনি। তারা টোটোতে চলাফেরা করাই বন্ধ করে দিয়েছেন।

দিন কয়েক আগে রায়গঞ্জ শহরের বীরনগর এলাকায় এক টোটো চালকের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন শহরের বাসিন্দারা। ওই টোটোতে কারা চেপেছিলেন বা ওই টোটো চালকের সাথে কার কার সংস্পর্শ ঘটেছিল তা থেকে সংক্রমণের আশঙ্কায় রায়গঞ্জ শহরের বাসিন্দারা এখন টোটোতে চড়া বন্ধ করে দিয়েছেন। রায়গঞ্জ শহরের রাস্তায় টোটো চলাচল করলেও অধিকাংশ টোটো খালি থাকছে। মানুষ টোটোর বদলে রিকশা কিংবা সাইকেল এমনকি অনেকেই পায়ে হেঁটেই নিজেদের কাজ সারছেন। এর ফলে একপ্রকার রোজগারহীন হয়ে পড়ছেন রায়গঞ্জ শহরের টোটো চালকেরা।

শহরের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, এখন তারা টোটোতে উঠছেন না। প্রয়োজনে সাইকেল চালিয়ে বা পায়ে হেঁটেই কাজ সারছেন।

শহরের টোটো চালকেরা জানিয়েছেন, রাস্তায় টোটো নিয়ে বের হলেও আতঙ্কে মানুষ টোটোতে উঠছেন না। এমনিতেই প্রায় দুমাস যাবৎ লক ডাউন চলায় টোটো চলাচল বন্ধ ছিল। কিছুদিন ধরে রাস্তায় টোটো নামিয়েছি কিন্তু এরমধ্যেই এক টোটো চালকের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় মানুষ টোটোতে চলাফেরা করাই বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে রায়গঞ্জের টোটো চালকেরা আবার কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here