মানুষকে বোকা বানাতে ফেক জয়েনিং দেখাচ্ছে তৃণমূল: সুখময়

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, ঝাড়গ্রাম, ৮ জুলাই:
“জঙ্গলমহলের ঝাড়গ্রাম জেলায় মানুষ যখন ক্রমশ বিজেপি মুখী হচ্ছেন তখন ফেক জয়েনিং দেখিয়ে জেলাবাসীকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে তৃণমূল।” মঙ্গলবার গোপীবল্লভপুর ব্লকের সাতমা অঞ্চলে দুইশ জন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকের বিজেপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন বিজেপির ঝাড়গ্রাম জেলার সভাপতি সুখময় সৎপথি।

তিনি বলেন, গোপীবল্লভপুর, নয়াগ্রাম সহ জেলার বিভিন্ন ব্লকে মানুষ দলে দলে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পাল্টা হিসেবে তৃণমূল অদ্ভুতভাবে ফেক যোগদান দেখাতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে। সুখময় বাবু বলেন, শাসক দলের কাজকর্ম দেখে ক্ষুব্ধ হয়ে যেসব কর্মীরা দল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন তাদের বুঝিয়ে সুঝিয়ে এবং বিজেপি তকমা লাগিয়ে দলে ফেরানোর নাটক চালাচ্ছেন তৃণমূল নেতারা। মানুষ এসব নাটক ধরে ফেলেছেন। অনেক ক্ষেত্রে বিজেপি কর্মীদের ভয় দেখিয়েও তৃণমূলে যোগ দেওয়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বিজেপির জেলা সভাপতি।

তিনি বলেন,”গরিব মানুষের আবাস যোজনায় কাটমানি নেওয়া, আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকা লুট, গরিব মানুষদের জন্য বরাদ্দ চাল চুরি ইত্যাদি সব কিছুতেই জড়িত তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। এজন্য জেলার মানুষ তাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে রয়েছেন। শাসক দলের প্রতি মানুষের এই ক্ষোভ আছড়ে পড়েছিল লোকসভা নির্বাচনে। ফলে জঙ্গলমহলে সাফ হয়েছে তৃণমূল। আগামী বিধানসভা নির্বাচনেও শাসক দলকে যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য মানুষ তৈরি হচ্ছেন।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here