পুরুলিয়ার সাঁতুড়ি ব্লকে বিক্ষোভরত বিজেপি মহিলা কর্মীদের অসম্মান করার জন্য ক্ষমা চাইলেন তৃণমূল নেতা

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২৮ সেপ্টেম্বর: আন্দোলনরত মহিলাদের অসম্মানের জন্য ক্ষমা চাইলেন তৃণমূল নেতা। পুরুলিয়ার সাঁতুড়ি ব্লক অফিস চত্বরে ঘটনাটি ঘটে সোমবার বিকেলে। এদিন ব্লক অফিস চত্বরে পঞ্চায়েত সমিতির কার্যালয়ে উন্নয়ন মূলক পরিকল্পনার বৈঠকে তৃণমূল পরিচালিত ওই বোর্ড বিজেপির ক্ষমতায় থাকা পঞ্চায়েতগুলিকে বঞ্চনার করে বলে অভিযোগ। কোনওরকম উন্নয়নমূলক কাজের জন্য তালিকাভুক্ত করা হয়নি ওই পঞ্চায়েতগুলিতে বলে বিজেপির অভিযোগ। এই কারণে পঞ্চায়েত সমিতিতে থাকা বিজেপির সদস্যরা বৈঠক শেষে বেরিয়ে যান। তারপরেই ব্লক অফিস চত্বরে ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। ওই বিক্ষোভে সামিল হন স্থানীয় বিজেপি মহিলা নেত্রী ও সদস্যরাও।

বিক্ষোভরত বিজেপির স্থানীয় মন্ডল সভাপতি অরূপ আচার্য্য বলেন, “আমাদের বিক্ষোভ চলাকালীন তৃণমূলের স্থানীয় নেতা বিধুভূষণ শান্তিকারী কয়েকজনকে নিয়ে মহিলাদের হাত দিয়ে সরিয়ে ভেতরে ঢোকেন। এছাড়া মহিলাদের অসম্মানিত করেন তৃণমূলের ওই স্থানীয় নেতারা। তাই এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে আমরা বিক্ষোভ জারি রাখি।” যদিও পরে পুলিশের মধ্যস্থতায় অভিযুক্ত তৃণমূল স্থানীয় নেতা, বিজেপি নেতা ও মহিলা নেত্রীদের কাছে ক্ষমা চান।

অভিযুক্ত ওই তৃণমূল নেতা অবশ্য জানান, “আমি কোনও ভুল করিনি। তবে, পুলিশের উপস্থিতিতে আপোশে মীমাংসা হয়ে যায়।”

প্রসঙ্গত, সাঁতুড়ি ব্লকের বিজেপির ক্ষমতায় থাকা গড়শিকা, টাড়াবাড়ি, রামচন্দ্রপুর, কোটালডি এবং সাঁতুড়ি পঞ্চায়েতে কোনওরকম উন্নয়নমূলক কাজ করা হয়নি বলে অভিযোগ বিজেপির। এদিনের বৈঠকে উন্নয়নের তালিকায় জায়গা পায়নি ওই পঞ্চায়েতের কোনও এলাকা। আর এই অভিযোগে সরব হয় বিজেপি। আগামী দিনেও আন্দোলন আরো ভয়ঙ্কর রূপ পাবে বলে জানান সাঁতুড়ি মন্ডল সভাপতি অরূপ আচার্য।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here