অনুব্রতকে খুনের হুমকি দিয়ে শ্রীঘরে তৃণমূল নেতা!

আমাদের ভারত, গুসকরা, ২২ সেপ্টেম্বর: তৃণমূল নেতা তথা বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে প্রাণনাশের হুমকি  দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন তৃণমূল নেতা নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়। তিনি গুসকরা পুরসভার প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর। মঙ্গলবার দুপুরে গুসকরা শহরের স্কুলমোড় এলাকা তাকে গ্রেফতার করা হয়। অনুব্রত মন্ডলকে ফোনে হুমকি দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

তৃণমূলের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, তৃণমূল নেতা অনুব্রত মন্ডলের স্ত্রী অসুস্থ থাকার সময় চিকিৎসার জন্য নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের কাছ থেকে ২০ লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিলেন বলে অভিযোগ।  সেই টাকা ফেরত চাইতে গেলে অনুব্রত মন্ডল টাকা নেওয়ার কথা অস্বীকার করে বলে দাবি করেন নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়। এরপরেই তিনি ফোন করে অনুব্রত মন্ডলকে গুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দেন।  হুমকির অডিও ভাইরাল হতেই গুসকরার ইটাচাঁদার বাসিন্দা সেখ সুজাউদ্দিন নামে এক তৃণমূল কর্মী এদিনই নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে দলের নেতা অনুব্রত মণ্ডলকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরে পুলিশ নিত্যানন্দকে গ্রেফতার করে।

হুমকি দেওয়ার কথা স্বীকার করে নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায় বলেন, কেষ্ট মণ্ডল ওর স্ত্রীর অসুখের সময় আমার কাছ থেকে ২০ লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিল। সেই টাকা ফেরত দিচ্ছে না।বারবার চেয়ে ফেরত পাইনি। তাই আমি ওকে হুমকি দিয়েছিলাম। ছাড়া পেয়ে আবার আমি কেষ্ট মণ্ডলের কাছে টাকার জন্য  তাগাদা দেবো।প্রয়োজনে আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  কাছে যাবো।

বাম আমলেও গুসকরা পুরসভায় তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন। বিগত পুরবোর্ডের পুরসভার পূর্ত বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। গুসকরা পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার বিদায়ী কাউন্সিলর নিত্যানন্দবাবু দলের মধ্যেই একাধিকবার বিতর্কে জড়িয়েছেন। এবার অনুব্রত মন্ডলকে খুনের হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here