তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের ১০ বছরের ছেলেকে অপহরণ করে খুন, চাঞ্চল্য মালদার মোথাবাড়ি এলাকায়

আমাদের ভারত, মালদা, ১৩ আগস্ট: তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্যর ১০বছরের ছেলেকে অপহরণ করে খুন। তিনদিন পর উদ্ধার হল দেহ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদার মোথাবাড়ি থানা এলাকাতে।

জানাগেছে, গত ৯ আগষ্ট রাতে পাশেই এক আত্মীয়ের বিয়েতে গিয়েছিল মোথাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের আমলিতলা গ্রামের তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য হাফিজুল ইসলামের ১০ বছরের ছেলে ওমর ফারুক। তার পর সে নিখোঁজ হয়ে যায়। পরে জানাযায় রাত আটটা নাগাদ বিয়ে বাড়ি থেকে ফেরার পথে তার এক পরিচিত ব্যক্তি গাড়িতে তুলে নিয়েছিল। বাড়ি থেকে মাত্র ২০ মিটার দূরে ঘটনাটি ঘটে। সেই সময় ছেলেটি একাই বাড়ি ফিরছিল। অপহরণের এক ঘন্টা পর পরিবারের এক সদস্যের মোবাইলে ফোন করে ৫০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। সেই রাতেই মোথাবাড়ি থানাতে অভিযোগ করে পরিবারের সদস্যরা। তদন্ত শুরু করে পুলিশ। কিন্তু কোনও হদিস করতে পারেনি পুলিশ। বুধবার বিকেলে স্থানীয় এক আমবাগানে উদ্ধার হয় ছেলেটির মৃতদেহ। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

নিহত বালক ওমর ফারুকের বাবা মা দুজনেই পঞ্চায়েত সদস্য। ওমর স্থানীয় একটি বেসরকারি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ত। এমন ঘটনার কারণ নিয়ে অপহৃত বালকের পরিবার জানায়, তাঁদের সঙ্গে কারো সাথে কোনও শত্রুতা নেই। তবে ওমরের বাবা কমিশনে শ্রমিক সরবরাহের কাজ করেন। ফলে অপহরণ করে খুনের পিছনে এই শ্রমিক সংক্রান্ত কোনও সম্পর্ক আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here