পশ্চিম মেদিনীপুরে আমফানের গ্রাসে একুশ হাজার বাড়ি, দুটি প্রাণ 

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ২২ মে: সমুদ্র থেকে দুশো কিলোমিটার দূরে থেকেও আমফানের দাপটে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় ভেঙ্গে পড়েছে একুশ হাজার বাড়ি। কেড়ে নিয়েছে দুটি তরতাজা প্রাণ। জেলার সাতটি পুরসভা এলাকা এবং একুশটি  ব্লকেই আমফানের দাপট প্রভাব ফেলেছে।

জেলার প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে, ক্ষতিগ্রস্ত একুশ হাজার বাড়ির মধ্যে আটশো বাহান্নটি বাড়ি পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে। আংশিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সতের হাজার নয়শো দুটি বাড়ি। ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের আধিকারিকরা দফায় দফায় বৈঠক করেছেন। জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রশাসনিক বৈঠকের পর জানানো হয়েছে, জেলায় এক লক্ষ চুয়াল্লিশ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। যার মধ্যে সতেরো হাজার একশো ছত্রিশ জনকে এক হাজার চারশো আঠারোটি ত্রাণ শিবিরে রাখা হয়েছে। গ্রামবাসীদের কথামতো তাদের সুবিধাজনক জায়গায় পৌঁছানো হয়েছে পঁয়তাল্লিশ হাজার সাতশো তেষট্টি জনকে। দুর্গতদের সাহায্যে এক হাজার তিনশো ঊনসত্তরটি জায়গায় রান্না করা খাবার দেওয়া হচ্ছে। এজন্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সঙ্গে দুশো জন স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছেন। এ পর্যন্ত পঁয়ত্রিশ হাজার মানুষকে জামা কাপড় দেওয়া হয়েছে। বিলি করা হয়েছে তারপোলিন সিট।

আমফানের গ্রাসে মৃত্যু হয়েছে মোহনপুর ব্লকের বাগদা গ্রামের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী নবকুমার পাত্র এবং পিংলা ব্লকের রাউতচক গ্রামের রবিন পূর্তি নামে সাতাশ বছরের এক যুবকের। দুটি পরিবারকেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আড়াই লক্ষ টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here