আমডাঙায় খুন বিজেপি যুবমোর্চার দুই সক্রীয় কর্মী

নীল বনিক, আমাদের ভারত, কলকাতা, ১৬ মে: বিজেপি যুবমোর্চার দুই কর্মীকে গুলি করে হত্যা করার অভিযোগ উঠল এক পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে উত্তরচব্বিশ পরগনার আমডাঙার তারাবেড়িয়া পঞ্চায়েত এলাকায়। অভিযুক্ত পুলিশ কর্মীর নাম সন্তোষ পাত্র।

জানাগেছে, শুক্রবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ পাড়ার এক জায়গায় বসে গল্প করছিল তারা। হঠাৎ অন্ধকার থেকে গুলি করা হয় তাদের লক্ষ্য করে। আহত দু জন কে বারাসাত হাসপাতালে আনা হয়। আনার অল্প কিছু সময় বেঁচে ছিল একজন। অন্য জনকে ব্রড ডেড বলে জানান চিকিৎসক। স্থানীয়রা জানিয়েছে নিহত দুজনের নাম সুমন্ত মন্ডল(৩২) ও অরূপ মন্ডল(২৮)। আহত হয়েছেন ওই দুই যুবকের বাবা। স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশের প্রাথমিক অনুমান পারিবারিক বিবাদের জেরে এই ঘটনা।

জানাগেছে, ওই অভিযুক্ত পুলিশ কর্মী সন্তোষ পাত্র সম্পর্কে কাকাতো ভাই হয়। দীর্ঘ দিন ধরে জমিজমা নিয়ে বিবাদ চলছিল। আর তার জেরেই খুন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। পরিবারের লোকেদের সঙ্গে কথা বলার পর সাংবাদিকদের জানান মৃত অরূপ মন্ডল ও সুমন্ত মন্ডল এর পরিবারকে ৫ লক্ষ করে টাকা এবং আহতকে দু লক্ষ টাকা দেবার ব্যবস্থা করবেন।

খুনের ঘটনায় পুলিশি ব্যবস্থার সমালোচনা করে অর্জুন সিং বলেন, একজন পুলিশকর্মী কিভাবে বাড়িতে বন্দুক নিয়ে আসতে পারেন? পুলিশকর্মী কখনোই সার্ভিস রিভলভার বাড়িতে আনতে পারেন না। ঘটনায় জড়িত অভিযুক্ত পুলিশ কর্মীকে গ্রেপ্তারের দাবি তোলেন। তিনি আরো জানান তাদের দলীয় কর্মীর বাড়িতে দেখা করতে আসায় পুলিশ বাধা সৃষ্টি করে। আমডাঙা জুড়ে অসামাজিক কাজের সঙ্গে বহু মানুষ যুক্ত হচ্ছে, তাদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি তোলেন সাংসদ
আজ দুপুর দুটো নাগাদ বিধাননগর নর্থ থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন অভিযুক্ত পুলিশকর্মী।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here