অন্ডালে পুলিশের হাতে ধৃত দুই এটিএম হ্যাকার 

জয় লাহা, দুর্গাপুর, ৩ অক্টোবর: ফের এটিএম হ্যাকারদের দৌরাত্ম শিল্পাঞ্চলজুড়ে। পুলিশের জালে ধরা পড়ল দুই এটিএম হ্যাকার। উদ্ধার হল নগদ সহ চিপ ডিভাইস। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে অন্ডালের কাজোড়ায়। রবিবার কাজোড়া মোড়ের কাছ থেকে দুই এটিএম হ্যাকারকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ধৃতদের নাম বিশাল বাউরি ও সানি কুমার ভার্মা। দু’জনের বাড়ি ঝাড়খন্ডের ধানবাদ। সোমবার ধৃতদের দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদের জামিন খারিজ করে দেন।

উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে খনি অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় এটিএম থেকে টাকা গায়েব হওয়ার অভিযোগ উঠছিল। পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের হয়। তারপরই নড়েচড়ে বসে আসানসোল-দুর্গাপুর কমিশনারেট পুলিশের সাইবার বিভাগ। শুরু হয় সাইবার নজরদারি। নজর রাখা হচ্ছিল বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি ব্যাঙ্কের এটিএম গুলির ওপর। কাজোড়া মোড় সংলগ্ন একটি এটিএম কাউন্টার থেকে হাতেনাতে দুই দুষ্কৃতিকে ধরে ফেলে অন্ডাল থানার পুলিশ। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় আয়রন চিপ ডিভাইস, স্কু ড্রাইভার সহ অন্যান্য সরঞ্জাম ও নগদ পাঁচ হাজার টাকা। ধৃত দু’জনের নাম বিশাল বাউরি ও সানি কুমার ভার্মা। দু’জনের বাড়ি ঝাড়খন্ডের ধানবাদ এলাকায়।

জানা গেছে প্রায় দিনই ঝাড়খন্ড সীমান্ত পেরিয়ে পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোল, রানীগঞ্জ, অন্ডাল, পাণ্ডবেশ্বর এলাকায় বিভিন্ন ব্যাংকের এটিএমে তারা হানা দেয়। তারপর সুযোগ বুঝে আয়রন চিপ ডিভাইসের সাহায্যে টাকা হাতিয়ে ফের ঝাড়খন্ডে চম্পট দেয়। অনুমান ধৃতরা জামতাড়া সাইবার অপরাধ চক্রের সঙ্গে জড়িত। অভিযোগ উঠতেই পুলিশ কড়া নজরদারি শুরু করে। রবিবার কাজোড়া মোড়ে একটি এটিএমে টাকা হাতানোর উদ্দেশ্যে ঢোকার সময় পুলিশ তাদের পাকড়াও করে।  সোমবার ধৃত দুজনকে দুর্গাপুর মহাকুমা আদালতে তোলা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, আদালতে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।”

 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here