মদের দোকান বন্ধ, কিন্তু কার নির্দেশে তা জাহির করতে ময়দানে তৃণমূলের দু’পক্ষ

সুশান্ত ঘোষ, আমাদের ভারত, বনগাঁ, ৭ মে: মদের দোকান বন্ধ করতে তৃণমূলের দুপক্ষের ক্ষমতার লড়াই। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটে উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ পৌর এলাকার ঘটনা। এদিন সকালে মদের দোকান না খুললেও বিক্ষোভে নামলো তৃণমূলের একাংশ। তাদের দাবি, সরকার ঘোষণা করলেও লকডাউন চলাকালী মদের দোকান খোলা যাবে না। একই দাবি করে বুধবার রাতে বনগাঁ পৌরসভার চেয়ারম্যান শঙ্কর আঢ্য বলেছেন, মদের দোকানের মালিকদের তিনি অনুরোধ করেছেন, লকডাউন না ওঠা পর্যন্ত মদের দোকান বন্ধ রাখতে হবে। অনলাইনে মদ বিক্রি করতে পারেন।

এদিকে বিক্ষোভকারীরা বলছেন বনগাঁর তৃণমূল জেলা পরিষদের মেন্টর গোপাল শেঠের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার মদের দোকান বন্ধের দাবিতে তারা বিক্ষোভে নেমেছেন। ফলে ক্ষমতা দখল নিয়ে গোপাল শেঠ ও শঙ্কর আঢ্যের লড়াই চলছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

দীর্ঘ লকডাউনের পর বনগাঁ রেডজোন ঘোষণার পরও সোমবার বনগাঁর সমস্ত মদের দোকান খোলা হয়। মদের দোকান মালিক সূত্রের খবর, বনগাঁতে মদের দোকান দুদিন খোলা থাকলেও বুধবার প্রশাসনের পক্ষ থেকে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। প্রশাসনের দাবি সামাজিক দূরত্ব না মেনে মদের দোকানে লম্বা লাইন পড়ছে। বনগাঁ শহরের মদের দোকান গুলিতেও উপচে পড়া ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে। লকডাউন উপেক্ষা করেই প্রতিদিন মদ কিনতে লাইনে দাঁড়াচ্ছে শয়ে শয়ে মানুষ। বুধবার প্রশাসনিক বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, কবে খুলবে মদের দোকান। সেই মতো বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করেন মদের দোকানের মালিকরা অনলাইনে মদ বিক্রি করতে পারেন। প্রকাশ্যে দোকান খুলে মদ বিক্রি করতে পারবে না। এর পরেও বৃহস্পতিবার গোপাল শেঠের অনুগামী ও তৃণমূলের এক কাউন্সিলার বন্ধ মদের দোকানের সামনে বিক্ষোভ দেখান। তাহলে রাজনৈতিক মতে কার নির্দেশে মদের দোকান বন্ধ হল এই নিয়ে দুই পক্ষ কৃতিত্ব নিতে চাইছে।

এদিকে তৃণমূল জেলা পরিষদের মেন্টর গোপাল শেঠ বলছেন, বিক্ষোভের কথা আমি কিছুই জানি না। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে কেউ বা কারা করতে পারে। তবে আমার জানা নেই।

অন্যদিকে বনগাঁ পৌরসভার চেয়ারম্যান শঙ্কর আঢ্য বলেন, আমি আগেই আঁঁচ পেয়েছিলাম, এমন বিক্ষোভ মিছিল হবে। সেই কারণে বুধবার মদের দোকানের মালিকদের উদ্দেশ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানিয়েছিলাম দোকান বন্ধ রাখতে। তবুও মদের দোকান খোলা হয়েছে। যদিও এদিন বন্ধ মদের দোকানের সামনেই ঝাঁটা হাতে, সামাজিক দূরত্ব না মেনে বিক্ষোভ দেখায় বনগাঁর তৃণমূলের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে সভানেত্রী অনিতা ঘোষ ও তার অনুগামীরা। তিনি বলেন, গোপাল শেঠের নেতৃত্বে এই বিক্ষোভ। অথচ গোপাল শেঠ মিছিল ও বিক্ষোভের কথা জানেনই না।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here