লকডাউন এ ফিরতে না পেরে বাংলাদেশে আটকে মতুয়া ভক্ত, বাড়িতে অসহায় স্ত্রী কন্যা

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত , নদীয়া, ২ আগস্ট:
বাংলাদেশে গিয়ে আটকে পড়েছে হরিচাঁদ গুরুচাঁদ ঠাকুরের এক মতুয়া ভক্ত। লকডাউন ঘোষণার পর বাংলাদেশ থেকে তিনি আসতে পারছেন না। এদিকে বাড়িতে মেয়ে আর বউয়ের অনাহারে দিন কাটছে।

পেশায় দিনমজুর সুমন বিশ্বাস গত ১১মার্চ বাংলাদেশের নড়াইল জেলার মিঠাপুর গ্রামে মতুয়া সম্প্রদায়ের দেবতা হরিচাঁদ গুরুচাঁদ শান্তি রাম ঠাকুরের ধামে বেড়াতে গিয়েছিলেন। মতুয়া সম্প্রদায়ের দেবতা হরিচাঁদ গুরুচাঁদ ঠাকুরের জন্ম বাংলাদেশের এই নড়াইল জেলার মিঠাপুর গ্রামেই। কিন্তু লকডাউন ঘোষণার সুমন বিশ্বাস তিনি ওখানেই আটকে পড়েন। চার মাস পাঁচ দিন হলো তিনি বাড়ি ছাড়া। হাতে তার পয়সাও শেষ হয়ে গেছে। আবার ভিসার মেয়াদ ও শেষ। বাংলাদেশের এক প্রাইমারি স্কুলে কোনও ভাবে তাঁর মাথা গোঁজার ঠাঁই হয়েছে। অন্যদিকে বাড়িতে মেয়ে এবং স্ত্রীর একপ্রকার খাওয়া বন্ধ। তাদের হাতেও আর কোনও টাকা নেই। পাড়া প্রতিবেশীদের সাহায্যে কোনওরকমে দিন গুজরান করছেন তাঁরা।

মতুয়া ভক্ত সুমন বিশ্বাস সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজ্য সরকার এবং ভারতীয় হাইকমিশনারের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন। পেশায় দিনমজুর ওই মতুয়া ভক্ত জানান তিনি দেশে ফিরতে চান। ফিরতে না পারলে তাঁর স্ত্রী এবং মেয়ে বাঁচবে না। যদি সরকার তাকর আবেদনে সাড়া না দেয় তাহলে তাঁকে এবং তার পরিবারকে আত্মহত্যা করতে হবে, আর সেই আত্মহত্যার জন্য রাজ্য সরকার এবং ভারতীয় হাইকমিশনার দায়ী থাকবেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here