বন্দুক উঁচিয়ে পুলিশকে গুলি করছে বিক্ষোভকারীরা, ছবি প্রকাশ করে বিতর্কের জবাব যোগী রাজ্যের পুলিশের

আমাদের ভারত,২৬ ডিসেম্বর:এনআরসি ও সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যারা বিক্ষোভ করছিলেন সেই বিক্ষোভকারীদের ভিড়ে লক্ষ্য করে উত্তর প্রদেশে পুলিশের গুলি চালানোর ভিডিও একেবারে শোরগোল ফেলে ছিলো দেশজুড়ে। এবার এই ভিডিওর পাল্টা ছবি প্রকাশ করে অভিযোগের জবাব দিল উত্তর প্রদেশ পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের ভিড় থেকেও চালানো হয়েছে গুলি, এই পাল্টা ছবি প্রকাশ করল যোগী রাজ্যের পুলিশ।

গত ১৯-২১ ডিসেম্বর সিএএ ও এন আর সি বিরোধী আন্দোলন চরম আকার ধারণ করে। ফলে তাতে গুলি চালাতে বাধ্য হয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। কিন্তু এবার পুলিশ যে ছবি প্রকাশ করেছে তাতে ভিড়ের মধ্যে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে বেশ কয়েকজনকে দেখতে পাওয়া গেল। কালো কাপড়ে মুখ ঢাকা নীল পোশাক পরা এক ব্যক্তি হাতে বন্দুক তুলে ভিড়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। অন্য আরেকটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে কালো জ্যাকেট পরা এক ব্যক্তিও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে রয়েছেন। পুলিশ দাবি করেছে এই ছবি শুক্রবারের।

বিক্ষোভকারীদের হিংসাত্মক কার্যকলাপের কথা বলতে গিয়ে উত্তরপ্রদেশের উপমুখ্যমন্ত্রী দীনেশ শর্মা বলেন, ২১ টি জেলা জুড়ে বিক্ষোভের জেরে ২৮৮ জন পুলিশ কর্মী জখম। তার মধ্যে ৬২ জন পুলিশ কর্মী গুলিতে জখম হয়েছেন। যেখানে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছে সেখান থেকে ৫০০-র বেশি বুলেটের উদ্ধার হয়েছে।

সিএএ এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জি নিয়ে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয় উত্তরপ্রদেশের একাধিক এলাকায়। বিরোধিতায় নেমে এখনো পর্যন্ত ১৬ জন বিক্ষোভকারীর মৃত্যুর হয়েছে শুধুমাত্র উত্তর প্রদেশে। মৃতদের মধ্যে রয়েছে ৮ বছরের শিশু। মেরঠেই মারা গেছেন ৬ জন বিক্ষোভকারী। অভিযোগ উঠেছিল পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে একাধিক বিক্ষোভকারীর। প্রাথমিকভাবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছিল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। কিন্তু বিজনৌরে বিক্ষোভে গুলিতে এক সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। সেই ঘটনায় গুলি চালানোর দায় স্বীকার করে নেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে থাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায় বন্দুকের সেফটি ব্যাচ খুলে সামনের দিকে ছুটে ছুটে যাচ্ছেন একজন অফিসার। পেছন থেকে আরো এক পুলিশ কর্মী বলছেন “মেরে ফেল সবকটাকে”। তারপরেই গুলি চলে। এই ভিডিও ঘিরে চূড়ান্ত বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। এবার এই বিতর্কের তার মধ্যেই অভিযোগের জবাব দিয়ে বিক্ষোভকারীদের বন্দুক হাতে ছবি প্রকাশ করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here