ব্যারাকপুরে শুরু হল বয়স্কদের টিকা দেওয়া, লাইনে বিশৃঙ্খলার জেরে সংক্রমণের আশঙ্কা

প্রতীতি ঘোষ, ব্যারাকপুর, ১৮ জুন:
ব্যারাকপুর পৌরসভার উদ্যোগে শুক্রবার থেকে শুরু হল বরস্কদের করোনার ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ। করোনা থেকে বাঁচতে সকলকে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা বলা হচ্ছে বিশেষজ্ঞের তরফ থেকে আর সেই পথে হাঁটছে সরকারও। এই ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজে পিছিয়ে নেই ব্যারাকপুর পৌরসভা।
মূলত ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে যাদের বয়স এবং যারা শারীরিক ভাবে অক্ষম তাদেরই ভ্যাক্সিন দেওয়া হচ্ছে ব্যারাকপুর সুকান্ত সদনে। প্রত্যেক দিন ৫০০ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে সুকান্ত সদন থেকে। তবে, ভ্যাক্সিন গ্রহীতারা বসার জায়গা ছেড়ে লাইনে ঠেলাঠেলি করায় বিশৃংখলার সৃষ্টি হয়।করোনা ঠেকাতে ভ্যাকসিন দিতে এসে করোনা সংক্রামণের আশঙ্কাই বেশি। ভ্যাকসিন গ্রহীতাদের অভিযোগ, ভুল ম্যানেজমেন্টের জন্যই এই বিশৃংখলা। এই বিশৃংখলার কথা স্বীকার করে নেন ব্যারাকাপুর পুরসভার পুরোপ্রশাসক।

ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী বলেন “ব্যারাকপুরের সমস্ত বাসিন্দাদের যত দ্রুত সম্ভব করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ সম্পন করতে চাইছি আমরা। কারন ভ্যাকসিন নিলে কিছুটা নিরাপদ করা যাবে। পৌর প্রশাসক থেকে পৌর সভার কর্মীরা , পুলিশ কমিশনার, ডি এম সাহেব সকলেই আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত ভ্যাকসিনেশন পর্বটা সম্পন্ন করার।”

ব্যারাকপুরের পৌর প্রশাসক উত্তম দাস বলেন, “৬০ বছরের বয়সী যারা তাদের বাড়ি থেকে নিয়ে আসা হচ্ছে আবার টিকা দেওয়ার পর টোটো বা অটো করে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। আর ৮০ বছরের বেশি বয়স্কদের বাড়ি গিয়ে টিকা দেওয়া হচ্ছে।”এদিনের টিকা কর্মসূচিতে বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ, এস ডি ও, বি এন বোস হাসপাতালে সুপার সহ বিশিষ্ঠ ব্যক্তিরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here