ভারতে তৈরি করোনার টিকা মানবদেহে পরীক্ষার জন্য এগিয়ে এলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা সুরেন্দ্র জৈন

আমাদের ভারত, ৪ জুলাই: ভারতে তৈরি করোনা চলতি মাস থেকেই মানবদেহে ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু হবে বলে জানিয়েছে আইসিএমআর। দেশে তৈরি করোনার এই টিকা মানবদেহে পরীক্ষার জন্য এগিয়ে এলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা সুরেন্দ্র জৈন।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের জয়েন্ট সেক্রেটারি সুরেন্দ্র জৈন নিজে চিঠি লিখে টিকা মানবদেহে পরীক্ষার জন্য এগিয়ে আসার কথা জানিয়েছেন রহতকের বিডিএস ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ সাইন্সের উপাচার্যকে। ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ সাইন্স ইন রহতকের উপাচার্য পন্ডিত ভাগবত দায়াল শর্মাকে চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, তিনি সব সময় প্রস্তুত রয়েছেন এই পরীক্ষার জন্য। ইনস্টিটিউটের তরফে তাকে যখনই ডাকা হবে তিনি তখুনি এই টিকা মানবদেহে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য উপস্থিত হবেন সেখানে।

যে সংস্থাগুলিকে আইসিএমআর হিউম্যান ক্লিনিকাল ট্রায়ালে জন্য বেছে নিয়েছে, রহতকের ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ সাইন্স তারই অন্যতম।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে যৌথভাবে এই ভ্যাকসিন নিয়ে আসছে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ বা আইসিএমআর। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য ১২ ইনস্টিটিউটকে মনোনীত করা হয়েছে বলে সরকারের শীর্ষ মেডিকেল রিসার্চ বডি জানিয়েছে। এই ইনস্টিটিউট গুলিকে আইসিএমআর ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য প্রস্তুত হতে বলেছে। বিষয়টিকে প্রায়োরিটি প্রজেক্ট হিসেবে দেখছে কেন্দ্রীয় সরকার।

ইনস্টিটিউটগুলিকে চিঠি দিয়ে আইসিএমআর বলেছে , পুনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ বায়োলজিতে সার্স কফ-২ স্ট্রেন নিয়ে কাজ করে এই ভ্যাকসিন প্রস্তুত করা হয়েছে। আইসিএমআর এবং বিবিআই একসাথে এই ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল এবং ক্লিনিক্যাল ডেভলপমেন্ট এর ওপর কাজ করছে। সাধারণ মানুষের জন্য আগামী ১৫ আগস্ট এই টিকা লঞ্চ করতে চায় আইসিএমআর। স্বাধীনতা দিবসেই করোনাভাইরাস এর মত মারোনা অসুখ থেকে দেশবাসীকে মুক্তি দিতে চাই কেন্দ্র।

চলতি সপ্তাহেই ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করে দেবার নির্দেশ দিয়েছে আইসিএমআর। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের উপর নির্ভর করবে এই ভ্যাকসিনের সাফল্য।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here