বীরভূমের কাপাসডাঙায় রাস্তা সংস্কারের দাবিতে তৃণমূলের পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

আশিস মণ্ডল, বীরভূম, ১৮ সেপ্টেম্বর: রাস্তা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনে নামলেন গ্রামের মানুষ। রীতিমত তৃণমূলের পতাকা নিয়ে তিনঘন্টারও বেশি সময় ধরে অবরোধ করে রাখা হল পাথর শিল্পাঞ্চলের প্রধান রাস্তা। পরে মহম্মদ বাজার থানার পুলিশ গিয়ে আলোচনার প্রস্তাব দিয়ে অবরোধ তুলে দেয়।

বীরভূমের শোঁতসাল থেকে পাঁচামি শিল্পাঞ্চল পর্যন্ত প্রায় পাঁচ কিলোমিটার রাস্তা খানাখন্দে ভরা। সাইকেল, মোটরসাইকেল, টোটো তো দূরের কথা মানুষ স্বাভাবিকভাবে হাঁটাচলাও করতে পরে না। রাস্তা সংস্কারের দাবিতে প্রশাসনের সর্বস্তরে জানিয়েছে গ্রামবাসীরা। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে শনিবার সকাল আটটা থেকে কাপাসডাঙা গ্রামের কাছে রাস্তায় অবরোধ শুরু হয়। রীতিমত রাস্তার মাঝে তৃণমূলের পতাকা পুঁতে অবরোধ করতে দেখা যায় গ্রামবাসীদের।

গ্রামের বাসিন্দা মুর্তজা শেখ, মহম্মদ নিজামূলরা বলেন, “আমাদের এলাকার পাথর নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন এলাকার ঝাঁ চকচকে রাস্তা নির্মাণ হচ্ছে। আর আমরা খানাখন্দে উপর দিয়ে যাতায়াত করছি। আমরা সকলে তৃণমূল করি। সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই তৃণমূলের পতাকা ব্যবহার করা হয়েছে। পুলিশ এসে আমাদের আলোচনার মাধ্যমে রাস্তা সংস্কারের আশ্বাস দিলে ১১ টার দিকে অবরোধ তুলে নিই”।

তৃণমূল পরিচালিত ভাঁড়কাটা পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী বিকাশ কোনাই বলেন, “সত্যিই রাস্তার অবস্থা খুব খারাপ। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। কিন্তু কোনও সদুত্তর মেলেনি। তবে তৃণমূলের ঝান্ডা লাগিয়ে আন্দোলনের বিরোধী আমি। তাই অবরোধ স্থলে গিয়েও বাড়ি ফিরেছি”।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here