সরকার থেকে বরাদ্দ আটা না দেওয়ায় রেশন ডিলারকে ঘিরে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ৩ এপ্রিল: রেশনে চাল, গম এলেও আসেনি আটা। আটা বাকি রেখে বরাদ্দকৃত চাল এবং গম গ্রাহকদের দেওয়াকে কেন্দ্র করে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়লেন রেশন ডিলার। পরিস্থিতি বাগতিক দেখে রেশন ডিলার দোকান বন্ধ করে বাড়ি চলে যান। ডিলার দোকান বন্ধ করায় গ্রাহকরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। লকডাউনের নির্দেশ অমান্য করে গ্রামবাসীরা একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ দেখান। ঘটানাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার করণদিঘি থানার টুঙ্গিদিঘি গ্রামে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছান করণদিঘি থানার পুলিশ। উত্তেজিত গ্রামবাসীদের শান্ত করে ডিলারকে দোকানে ফেরান পুলিশ। রেশন ডিলার বরাদ্দকৃত আটা পুনরায় দেবার লিখিত আশ্বাসের পর গ্রামবাসিরা শান্ত হন।

রেশনে বিনা পয়সায় দুই কেজি চাল, গম এবং আটা মিলে পাঁচ কেজি দেবার কথা ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। কিন্তু উত্তর দিনাজপুর জেলার করণদিঘি থানার টুঙ্গিদিঘির রেশন দোকানে আটা পৌছায়নি বলে দাবি করেছেন রেশন ডিলার সরোজ কুমার রায়। চাল এবং গম আসায় দুই কেজি চাল এবং দেড় কেজি গম দেবার সিদ্ধান্ত নেয় রেশন ডিলার। আজ ভোর পাঁচটা থেকে গ্রাহকরা লকডাউনের নিদৃষ্ট নিয়ম মেনে রেশনের দোকানে লাইন দেন। দীর্ঘক্ষণ লাইনে না দাঁড়িয়ে ব্যাগ রেখে অন্যত্র বসেছিলেন। রেশনের সামগ্রী দেওয়া শুরু হতেই সরকার থেকে বরাদ্দকৃত সামগ্রী কম পাওয়ার অভিযোগে ক্ষিপ্ত হয়ে ডিলারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন গ্রাহকরা। খবর পেয়ে তিনটি গ্রামের গ্রাহকরা সেখানে ভিড় জমান। লকডাউনের নিয়ম ভেঙ্গে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন গ্রাহকরা পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ডিলার সরোজ কুমার রায় দোকান বন্ধ করে বাড়িতে চলে যান।

উত্তেজনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান সহ করণদিঘি থানার পুলিশ পৌছান। সরকারি বরাদ্দকৃত সামগ্রী এলেই পুনরায় গ্রাহকদের দেবার লিখিত আশ্বাস দেওয়ার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।এরপর পুলিশের উপস্থিতিতেই রেশনে সামগ্রী দেওয়া শুরু হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here