জলের ট্যাঙ্ক ভেঙ্গে ফেলার কাজ শুরু হতেই, জল সঙ্কট পুরুলিয়ার ঝালদায়

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ৩১ জুলাই: একদিকে পানীয় জলের সঙ্কট তো অপরদিকে আবার জল অপচয়। এই দুই সমস্যা এখন পুরুলিয়ার ঝালদা পুরসভার দৈনন্দিন চিত্র হয়ে উঠেছে। জলের অপচয় রুখতে পুরসভা প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেয়নি। যদিও অন্য এলাকায় জল সমস্যা মেটাতে জলের ট্যাঙ্ক সরবরাহ করার উদ্যোগ নিয়েছে পুরসভা।

ঝালদা পুরসভার ওভারহেড ট্যাঙ্কের অবস্থা খারাপ হওয়ায় ভাঙ্গার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তাই ট্যাংক ভেঙ্গে ফেলার কাজ শুরু হওয়ায় সেখান থেকে জল সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। ঝালদা পুরসভায় মোট ১২টি ওয়ার্ড। যার মধ্যে এখনও কিছু এলাকায় পানীয় জলের ব্যবস্থা করে উঠতে পারেনি পুরসভা। কিন্তু বাকি ওয়ার্ডে জন স্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগ মারফত মুরগুমা জলাধার থেকে পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল পৌরসভা। সেই ওয়ার্ডগুলিতেও পানীয় জলের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। অন্যদিকে, নিচু এলাকায় থাকা রাস্তার মুখহীন
কলগুলি থেকে পানীয় জল নর্দমায় ও রাস্তায় বয়ে যাচ্ছে। ওই এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ, এই সমস্যার মূল কারণ জলের ট্যাঙ্ক ভাঙ্গার কাজের।  দীর্ঘদিন ধরে বিপদজনক অবস্থায় রয়েছে ঝালদা পৌরসভার একমাত্র পানীয় জল সরবরাহকারি ট্যাঙ্কটি। বিপদজনক অবস্থায় থাকায় ট্যাঙ্কটি ভেঙ্গে ফেলার কাজ শুরু হয়েছে। যার ফলে সরাসরি মূর্গুমা জলাধার থেকে পাইপ লাইন মারফত জল আসছে। ফলে উঁচু স্থান বা কিছু কারণ বসত জল আসছে না। প্রয়োজনীয় পরিবর্তনীয় ব্যবস্থা না করার ফলে এই দুর্ভোগে পড়েছি আমরা।

এবিষয়ে ঝালদা পৌরসভার প্রশাসক প্রদীপ কর্মকার জানান, আমরা ইতিমধ্যেই ওই এলাকায় পুরসভার ট্যাঙ্কের সাহায্যে পানীয় জল পৌঁছে দিচ্ছি। জলের অপচয় রুখতে কলের মুখ লাগানোর ব্যবস্থা করছি। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে, তাড়াতাড়ি সমস্যা মিটবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here