৮ বছরে মহাত্মা গান্ধীর স্বপ্নের ভারত গড়ে তুলছি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আমাদের ভারত, ২৭ মে: হাতেগোনা আর কটা মাস বাকি। ডিসেম্বরেই গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচন। ভোটের বাদ্যি বেজে গেছে সেখানে। এরইমধ্যে দু’দিনের সফরে নিজের রাজ্যে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।আর সেখানে গিয়েই মোদীর ঘোষণা, “আমি যা হয়েছি তা গুজরাটের জন্যই”। তাঁর দাবি, গত ৮ বছরে তার সরকার মহাত্মা গান্ধী ও সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের স্বপ্নের ভারত গড়ে তুলছে।

শনিবার রাজকোটের এক জনসভায় বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নাম না করেই আবারও পরিবারতন্ত্র নিয়ে কংগ্রেসকে কটাক্ষ করেন তিনি। একইসঙ্গে নিজের সরকারের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরেন মোদী। জোরালো সওয়াল করেন ডাবল ইঞ্জিন সরকারের হয়। তিনি বলেন, আমি যখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলাম, কেন্দ্রের ইউপিএ সরকার ফাইল ক্লিয়ার করত না। গুজরাটে কোনো প্রকল্পের অনুমতি পাওয়া যেতো না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “রাষ্ট্রসেবার আট বছর পূর্ণ করেছে মোদী সরকার। মাতৃভূমির সেবায় কোনো ফাঁক রাখা হয়নি। মহাত্মা গান্ধীর স্বপ্নের ভারত গড়ে উঠছে। দেশের ৬ কোটি পরিবারকে নলবাহিত জল পরিষেবা দেওয়া হয়েছে। ৩ কোটি মানুষ মাথার ওপর পাকা ছাদ পেয়েছেন। বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। আমরা নিরন্তর রাজ্যগুলোকে সাহায্য করে চলেছি।”

গুজরাটের সেই জনসভা থেকে মোদী বলেন, “যখন জনগণের প্রচেষ্টা সরকারের প্রচেষ্টার সঙ্গে যুক্ত হয় তখন আমাদের সেবার শক্তি বৃদ্ধি পায়। সরকার দরিদ্রদের জন্য কাজ করতে নিবেদিত প্রাণ।” তিনি জানান,”জন ধন যোজনা থেকে দরিদ্র মানুষ উপকৃত হয়েছে। কোভিডের সময় আমরা নিশ্চিত করেছি যে সকলেই যেন টিকা পান। আমরা কৃষক এবং শ্রমিকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা জমা দিয়েছি। আমরা দরিদ্রদের জন্য বিনামূল্যে গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবস্থাও করেছি।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here